Categories
দেশ

সীমান্তের পর এবার সাইবার হানা চীনের? সরকারি কম্পিউটার হ্যাক করে লোপাট মোদী-ডোভালের তথ্য

সীমান্তের পর এবার সাইবার হানা চীনের? সরকারি কম্পিউটার হ্যাক করে লোপাট মোদী-ডোভালের তথ্য

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: অজানা আইডি থেকে ই-মেল ঢুকল সরকারি দফতরের অ্যাকাউন্টে। তার পরেই কম্পিউটারের একের পর এক তথ্যের গোপনীয়তা নষ্ট হতে শুরু করল! দেখতে দেখতে পুরো কম্পিউটারের তথ্যই বেহাত হয়ে গেল! দিল্লি পুলিশ সূত্রের খবর, সম্প্রতি ন্যাশনাল ইনফরম্যাটিকস সেন্টার (এনআইসি)-র কম্পিউটারে এ ভাবেই হানা দিয়েছে হ্যাকাররা। ওই কম্পিউটারগুলি থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল সম্পর্কিত নানা তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে তারা।

বেঙ্গালুরুর যে বেসরকারি সংস্থার দফতর থেকে ওই ইমেল পাঠানো হয়েছিল, তা ইতিমধ্যেই চিহ্নিত করেছে দিল্লি পুলিশের সাইবার অপরাধ দমনের দায়িত্বপ্রাপ্ত স্পেশাল সেল। পুরো ঘটনার পিছনের চিনের তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা শেনহুয়ার ‘হাত’ থাকতে পারে বলে মনে করছেন তদন্তকারীরা। কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য-প্রযুক্তি ও যোগাযোগ সংক্রান্ত বিষয় দেখভাল করে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা এনআইসি। সেপ্টেম্বরের গোড়ায় সেখানকার কিছু কম্পিউটারের সাইবার নিরাপত্তায় গুরুতর লঙ্ঘনের ঘটনা ধরা পড়েছে বলে দিল্লি পুলিশের দাবি।

মোদী ও দোভালের পাশাপাশি ওই কম্পিউটারগুলিতে গুরুত্বপূর্ণ সরকারি আমলাদের নানা তথ্য ছিল বলেও জানানো হয়েছে। ঘটনার কথা জানার পরেই এ বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে স্পেশাল সেল। বিষয়টি নজরে এসেছে দেশের তথ্য নিরাপত্তার দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা কম্পিউটার ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম অব ইন্ডিয়া (সার্ট ইন)-র।

Categories
দেশ

ভোটের আগে মুখ পুড়ল নীতিশ কুমার সরকারের: উদ্বোধনের আগেই ভেঙে পড়ল কোটি টাকার সেতু

ভোটের আগে মুখ পুড়ল নীতিশ কুমার সরকারের: উদ্বোধনের আগেই ভেঙে পড়ল কোটি টাকার সেতু

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: ইতিমধ্যেই নির্বাচনের দামামা বেজেছে বিহারে। করোনা আবহেই শেষ মহূর্তের ভোট প্রচারে মন দিয়েছে প্রায় সমস্ত রাজনৈতিক দলই। এরই মাঝে মুখ পুড়ল নীতিশ কুমার সরকারের। উদ্বোধনের আগেই কোটি টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত একটি ব্রিজ ভেঙে পড়ল বিহারের কিশানগঞ্জে। ভয়াবহ বন্যার কারণেই কিষাণগঞ্জের মানুষ এই ভয়াবহ ব্রিজ বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে বলে মত প্রশাসনের। তবে এই ক্ষেত্রে সেতু নির্মাণের দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থারও নিম্ন মানের সামগ্রী ব্যবহার ও কাজে গাফিলতি আছে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

সূত্রের খবর, সাম্প্রতিক খালে কিশানগঞ্জ জেলার দিঘলব্যাঙ্ক ব্লকের গোয়াবাড়িতে ১.৪২ কোটি টাকা ব্যয়ে কানকাই নদীর উপর তৈরি হয়েছিল এই ব্রিজটি। স্থানীয় বাসিন্দা সহ বিরোধী শিবিরের অভিযোগ সেতু নির্মাণে কারচুপির জেরে আজকে এই দিন দেখত হল গোয়াবাড়ির বাসিন্দাদের। বুধবার আচমকাই এই ব্রিজ ভেঙে যাওয়ায় জেলার অন্যান্য এলাকার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে ওই গ্রামের বাসিন্দাদের। স্থানীয়দের অভিযোগ আশু বিপদের আঁচ পেয়েও কয়েদিন ধরে স্থানীয় প্রশাসনকে জানিয়েও কোনও সুরাহা হয়নি। এমনকী কানকাই নদীর জল বিপদসীমার দিয়ে বইতে শুরু করলেও ব্রিজটিকে রক্ষা করার কোনও নূন্যতম প্রচেষ্টাও করা হয়নি সরকারি ভাবে।

গত বছর জুনেই প্রথম এই সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হয় বলে জানা যায়। এই বছরের জুনের মধ্যে তার কাজও শেষ হয়। তবে সরকারি ভাবে এখনও এই ব্রিজটির উদ্বোধন করা হয়নি। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালেও ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েছিল কিশনগঞ্জ। বন্যার হাত থেকে বাঁচতে সেই সময় গোয়াবাড়ি-কুদেলির মধ্যবর্তী রাস্তাওকাটা পড়ে বলে জানা যায়। পরবর্তীতে সেখানকার মানুষের সুবিধার্থে এই ব্রিজ নির্মাণের কাজ শুরু হয়। বর্তমানে ফের সেই বন্যার কবলে পড়ে তলিয়ে গেল নবনির্মিত এই সেতুটি।

Categories
দেশ

​পাক গোয়েন্দাদের তথ্য পাচারের অভিযোগে গ্রেফতার সেনাবাহিনীর প্রযুক্তি বিভাগের সদস্য মহেশ কুমার

​পাক গোয়েন্দাদের তথ্য পাচারের অভিযোগে গ্রেফতার সেনাবাহিনীর প্রযুক্তি বিভাগের সদস্য মহেশ কুমার

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: এবার ভারতীয় সেনাবাহিনীর গোপন তথ্য পাচারের অভিযোগ উঠল প্রযুক্তি বিভাগের এক সদস্যের ওপর। জানা যাচ্ছে, গত বৃহস্পতিবার মহেশ কুমার নামে বছর ২৮ এর ওই যুবককে হাতেনাতে ধরে হরিয়ানা পুলিশ। জানা যাচ্ছে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ভারতীয় সেনার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাকিস্তান মিলিটারি ইনটেলিজেন্সকে সরবরাহ করত চণ্ডীগড়ের রেওয়ারি জেলার ওই যুবক। পেশায় মিলিটারি ইঞ্জিনিয়ারিং উইংয়ের ওই সদস্য জয়পুরে কর্মরত ছিলেন।

পুলিশ সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার রাতে গুড়গাঁওয়ের ধারুহেরা বাসস্ট্যান্ড থেকে এসটিএফের আধিকারিকরা তাঁকে গ্রেফতার করে। জানা যাচ্ছে বিগত দুই বছর ধরে পাকিস্তানকে দেশের একাধিক গোপন তথ্য পাচার করত ওই যুবক। তবে তাঁর কীর্তি সেভাবে কেউ বুঝতে পারেনি। অবশেষে সন্দেহ হওয়ায় তাঁকে নজরে রাখতে শুরু করে তদন্তকারী অফিসাররা।

এমনকি তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে একাধিক রহস্যজনক লেনদেন সামনে আসে। ইতিমধ্যে তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে। আপাতত তাঁকে আদালতে পেশ করে পুলিশি হেফাজতে নেওয়ার চেষ্টা করা হবে। আন্দাজ করা যাচ্ছে তাঁকে জেরা করে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ তথ্যা সামনে আসতে পারে।

Categories
দেশ

একটি গোটা সম্প্রদায়কে নিশানা করার অধিকার নেই মিডিয়ার: ইউপিএস সি নিয়ে সুদর্শন টিভিকে কড়া ধমক সুপ্রিম কোর্টের

একটি গোটা সম্প্রদায়কে নিশানা করার অধিকার নেই মিডিয়ার: ইউপিএস সি নিয়ে সুদর্শন টিভিকে কড়া ধমক সুপ্রিম কোর্টের

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: ‘‌একটি গোটা সম্প্রদায়কে নিশানা করার অধিকার রয়েছে মিডিয়ার?‌’‌ ‘‌ইউপিএসসি জিহাদ‌’‌ মামলায় সুদর্শন টিভি–কে কড়া ধমক দিল সুপ্রিম কোর্ট। শো–এর প্রোমো সম্প্রচার হওয়ার পর থেকেই বিতর্ক শুরু হয় গোটা দেশে। প্রিভিউ ক্লিপে সুদর্শন টিভির দাবি ছিল, সরকারি চাকরিতে মুসলিমদের অনুপ্রবেশের বড়সড় ষড়যন্ত্র ফাঁস করা হয়েছে এই শো–তে। টুইটারে ভাইরাল হওয়া ওই ক্লিপে চ্যানেলের সম্পাদক সুরেশ চাভানকের অভিযোগ, সরকারি চাকরিতে জায়গা করে নেওয়ার জন্য পাবলিক সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষায় বেশি বেশি সংখ্যায় পাশ করানো হচ্ছে মুসলিমদের।

এটা বড়সড় একটা ষড়যন্ত্র। মামলা সুপ্রিম কোর্টে গড়ায়। শুক্রবার সেই মামলার শুনানিতে বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বধীন বেঞ্চ বলে, ‘‌শো সম্প্রচার করাই যেতে পারে। কিন্তু গোটা সম্প্রদায়ের ঘাড়ে দোষ চাপানো যাবে না। ওই সম্প্রদায়ের কেউ সিভিল সার্ভিসে ঢুকলেই আইসিস–এর প্রসঙ্গ টেনে আনা যাবে না। তাঁরা সরকারি চাকরিতে যুক্ত হলেই সেটাই ষড়যন্ত্র হিসেবে ধরে নেওয়াও একধরনের ঘৃণার বহিঃপ্রকাশ। এক্ষেত্রে বাক্‌–স্বাধীনতার মোড়কে ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে। ওই সম্প্রদায়ের প্রতিটি মানুষকে নিশানা করতে পারেন না আপনারা। আর যদি কাউকে বাদও দেন, সেক্ষেত্রে বিভাজনের রাজনীতি স্পষ্ট হয়।’‌

সুদর্শন টিভির পক্ষে আইনজীবী শ্যাম ডিভানের উদ্দেশে বেঞ্চ বলে, ‘‌কোনও সন্ত্রাসবাদী সংগঠন টাকা ঢালছে কিনা, সেবিষয়ে তদন্তমূলক সাংবাদিকতায় শীর্ষ আদালতের কোনও বক্তব্য নেই। কিন্তু মুসলিমরা ষড়যন্ত্র করছে, একথা একেবারেই বলা যাবে না। এই বার্তা গোটা দেশে ছড়িয়ে দেওয়া হোক। বিভাজনের রাজনীতি করলে দেশ টিকবে না!‌’‌

হলফনামায় সুদর্শন টিভির সম্পাদক সুরেশ চাভানকের অভিযোগ বলছেন, সন্ত্রাসবাদী সংগঠন টাকা ঢালে জাকাত ফাউন্ডেশনে। প্রসঙ্গত, ইউপিএসসি পরীক্ষায় যেসব মুসলিম পড়ুয়ার বসতে চান, তাঁদের প্রশিক্ষণ দেয় জাকাত ফাউন্ডেশন। এই প্রতিষ্ঠানের পক্ষে আইনজীবী সঞ্জয় হেগড়ে শীর্ষ আদালতকে জানান, ‘‌এটি একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। শুধু মুসলিম নয়, অ–মুসলিমদেও ইউপিএসসি পরীক্ষার জন্য তৈরি করে জাকাত ফাউন্ডেশন।’‌

Categories
বিশ্ব

মক্কা শরীফে পাহাড়ে আগুন: আগুন নিয়ন্ত্রণে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ

মক্কা শরীফে পাহাড়ে আগুন: আগুন নিয়ন্ত্রণে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট:সউদি আরবের পবিত্র মক্কা নগরীর মায়সান অঞ্চলের জাবালে আমাদ পাহাড়ে আগুন লেগেছে। পাহাড় থেকে বনাঞ্চলে সেই আগুন দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় দমকলবাহিনী কাজ করলেও পাহাড়ের রাস্তা ও জঙ্গলের কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হচ্ছে তাদের।

যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। স্থানীয় কর্তৃপক্ষের টুইটার থেকে জানা যায়, মায়সানের জাবালে আমাদ পাহাড়ের একটি বনাঞ্চল থেকে প্রথম আগুনের সূত্রপাত ঘটে। ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিয়োতে দেখা যায়, পাহাড় জুড়ে বিশাল এলাকায় আগুন ছড়িয়ে পড়েছে, আকাশে উঠছে ধোঁয়ার কুণ্ডুলি।

Categories
দেশ

উত্তরপ্রদেশে যোগী আদিত্যনাথের তৈরি করা হিন্দু যুব বাহিনীর নেতা খুন

উত্তরপ্রদেশে যোগী আদিত্যনাথের তৈরি করা হিন্দু যুব বাহিনীর নেতা খুন

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: যোগী আদিত্যনাথ ক্ষমতায় বসার পর থেকেই উত্তরপ্রদেশের একের পর এক খুন হচ্ছেন হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের নেতারা। এবার খোদ নিজের হাসপাতাল কাছ থেকে উদ্ধার হল আদিত্যনাথের হাতে তৈরি হিন্দু যুব বাহিনীর এক নেতার রক্তাক্ত মৃতদেহ। বরেলি’র বাসিন্দা ৩৭ বছরের ওই যুবকের নাম সঞ্জয় সিং।

বিষয়টিকে কেন্দ্র করে প্রবল উত্তেজনা ছড়িয়েছে উত্তরপ্রদেশের হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলির মধ্যে। মৃতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করলেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার অনেক আগে ২০০২ সালে হিন্দু যুব বাহিনী নামে একটি সংগঠন তৈরি করেছিলেন গোরক্ষপুরের সাংসদ যোগী আদিত্যনাথ। বরেলির বাসিন্দা সঞ্জয় সিং ওই সংগঠনের একজন সক্রিয় নেতা হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। বর্তমানে বরেলি জেলার সহ-সভাপতির দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধেয় শাহি পুলিশ স্টেশনের অধীনস্ত ডুনকা এলাকায় থাকা নিজের একটি হাসপাতালের কাছ থেকে সঞ্জয়ের রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। বর্তমানে ওই হাসপাতালের পাঁচ জন কর্মীকে আটক করে জেরা করার পাশাপাশি ঘটনাস্থলে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরাগুলিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Categories
বিশ্ব

বাংলাদেশের প্রখ্যাত আলেম হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা আহমদ শফী ইন্তেকাল করেছেন

বাংলাদেশের প্রখ্যাত আলেম হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা আহমদ শফী ইন্তেকাল করেছেন

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: বাংলাদেশের প্রখ্যাত আলেম বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের সভাপতি ও চট্টগ্রাম মুঈনুল ইসলাম মাদরাসার মুহতামিম ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা আহমদ শফী ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে তিনি রাজধানী ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন।

এর আগে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় হেফাজত ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর শারীরিক অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে ঢাকায় আনা হয়েছিল। এরপরই তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে থাকা আল্লামা শফীকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে শুক্রবার সন্ধ্যার আগে ঢাকায় এনে আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

উল্লেখ্য, প্রায় শতবর্ষী আল্লামা আহমদ শফী দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি বার্ধক্যজনিত দুর্বলতার পাশাপাশি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন।

Categories
দেশ

কে এই দু’‌রত্তির ছোকড়া: পার্লামেন্টে অনুরাগ ঠাকুরকে কড়া আক্রমণ সাংসদ অধীর চৌধুরীর

কে এই দু’‌রত্তির ছোকড়া: অনুরাগ ঠাকুরকে কড়া আক্রমণ সাংসদ অধীর চৌধুরীর

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: পিএম কেয়ার্স ফান্ডের পক্ষে বলতে গিয়ে নেহরু–গান্ধী পরিবারকে খোঁচা দিলেন অনুরাগ ঠাকুর। যার জেরে তাঁকে ক্ষমা চাইতে হবে, দাবি তুলল কংগ্রেস। লোকসভায় কংগ্রেসের নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরি তাঁকে ‘‌ছোকড়া’‌ বলতেও ছাড়লেন না। বিবাদের জেরে মুলতুবি হল লোকসভার অধিবেশন।
বিরোধীরা আঙুল তুললেন স্পিকারের দিকেও। পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ আনলেন স্পিকার ওম বিড়লার বিরুদ্ধে।

লোকসভায় পিএমকেয়ার্স তহবিল নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর, অধীর রঞ্জন চৌধুরি, মণীশ তিওয়ারিরা। তার পরেই পিএম কেয়ার্স ফান্ডের পক্ষে বলতে ওঠেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। বলেন, ‘‌হাইকোর্ট থেকে সুপ্রিম কোর্ট, সমস্ত আদালত পিএম কেয়ার্সকে বৈধতা দিয়েছে। ছোট শিশুরা নিজেদের ভাণ্ডার থেকে টাকা নিয়ে দান করেছে এই তহবিলে।

নেহরু একটি তহবিল তৈরি করেছিল, যা নথিভুক্তই হয়নি। আপনারা (‌কংগ্রেস)‌ শুধু গান্ধী পরিবারের লাভের জন্যই তহবিল তৈরি করেছেন। আপনারা সোনিয়া গান্ধীকে এই চেয়ারম্যান করেছে। এর তদন্ত হওয়া উচিত।’‌

তার পরেই তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায় কংগ্রেস। সাংসদ অধীর বলেন, ‘‌হিমাচলের এই ছোকড়া কে?‌ নেহরু এই তর্কে কীভাবে এলেন?‌ আমরা কি নরেন্দ্র মোদির নাম নিয়েছি?‌ কেে এই দু’‌ রত্তির ছোকড়া.‌.‌’ এর পর কংগ্রেস দাবি করে, অনুরাগকে ক্ষমা চাইতে হবে। লোকসভা থেকে বেরিয়ে যায় তাঁরা।

স্পিকার ওম বিড়লা সকলকে মাস্ক পরার অনুরোধ করেন। বলেন, ‘‌সুরক্ষা নিয়ে খেলা করলে তাঁকে কক্ষের বাইরে পাঠানো হবে।’‌ তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ ব্যানার্জি অভিযোগ করেন, স্পিকার বিজেপি সাংসদদের প্রতি পক্ষপাতদুষ্ট। ‘‌চাইলে আমাদের বের করে দিন। তবু এ রকম চলতে দিতে পারব না।’‌ ‌

Categories
দেশ

আর্থিক মন্দায় হিমশিম মোদি সরকার: মে থেকে অগাস্টেই ৬৬ লক্ষ উচ্চ বেতনভুক কর্মচারী ছাঁটাই! চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট প্রকাশ

আর্থিক মন্দায় হিমশিম মোদি সরকার: মে থেকে অগাস্টেই ৬৬ লক্ষ উচ্চ বেতনভুক কর্মচারী ছাঁটাই! চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট প্রকাশ

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: ক্রমেই করোনা গ্রাসে তলিয়ে যাচ্চে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বধীন গোটা দেশ। যেখানে বছরে ২ কোটি চাকরি দেওয়ার কথা ছিল সেখানে তীব্র আর্থিক মন্দায় কাজ হারিয়ে বেকার হয়েছেন দেশের লক্ষ লক্ষ মানুষ। সদ্য প্রকাশিত সেন্টার ফর মনিটারিং ইণ্ডিয়ান ইকোনমিক বা সিএমআইই-র রিপোর্ট মোতাবেক বর্তমানে দেশের বেকারত্বের জাতীয় গড় দাঁড়িয়েছে ৮.৩৫ শতাংশে। এবার এই খাতে আরও আশঙ্কার কথা শোনাতে দেখা গেল সিএমআইইকে।

সদ্য প্রকাশিত অপর একটি সিএমআইই রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে মে থেকে অগাস্টের মধ্যে গোটা দেশে কাজ হারিয়েছেন প্রায় ৬৬ লক্ষ উচ্চ বেতনভুক কর্মচারীরা। যাদের মধ্যে রয়েছেন চিকিতসক, শিক্ষক, ইঞ্জিনিয়ার সহ আরও একাধিক পেশার মানুষ। প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের পর থেকেই সমস্ত ক্ষেত্রে নতুন নিয়োগ কার্যত তলানিতে এসে ঠেকে।

এদিকে করোনাকালে অসংগঠিত ক্ষেত্র ছাড়া অন্যান্য বেতনভুক কর্মীদের মধ্যে ২ কোটিরও বেশি মানুষ কাজ হারান বলে জানা যায়। বর্তমান রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে যার সিংহভাগই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে উচ্চপদে কর্মরত ছিলেন। সব থেকে বেশি কাজ গেছে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, চিকিত্সক, শিক্ষক, হিসাবরক্ষকদের। যদিও এই খাতে নতুন উদ্যোগপতিদের করুণ অবস্থার কথা উল্লেখ করলে তালিকা যে আরও দীর্ঘ হবে তা বলাই বাহুল্য।

এই বছরে শুধু এপ্রিল মাসেই ভারতে চাকরি হারিয়েছেন প্রায় ২.৭ কোটি ভারতীয় তরুণ-তরুণী। সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছে সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি বা সিএমআইই।

Categories
দেশ

নরেন্দ্র মোদীর আচ্ছে দিন, বেসরকারি রেল কোম্পানি ইচ্ছামতো ভাড়া বাড়াতে পারবে : জানাল কেন্দ্র

আচ্ছে দিন, বেসরকারি রেল কোম্পানি ইচ্ছামতো ভাড়া বাড়াতে পারবে : জানাল কেন্দ্র সরকার

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: বেশ কিছুদিন ধরেই রেলে বেসরকারি বিনিয়োগ আকর্ষণ করতে চাইছে মোদী সরকার। এবার সরকার জানাল, যে বেসরকারি সংস্থা ট্রেন চালাবে, তারা ইচ্ছামতো বিভিন্ন রুটে ভাড়া নিতে পারবে।

রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যান ভি কে যাদব বলেন, “বেসরকারি সংস্থাগুলিকে ইচ্ছামতো ট্রেনের ভাড়া স্থির করার অধিকার দেওয়া হবে। তবে একই রুটে চলবে এয়ার কন্ডিশনড বাস ও প্লেন। ভাড়া স্থির করার সময় বেসরকারি সংস্থাকে একথা মাথায় রাখতে হবে।”

রেলভাড়া ভারতে একটি খুবই সংবেদনশীল বিষয়। ভারতে প্রতিটি ট্রেন রোজ যত যাত্রী বহন করে তা অস্ট্রেলিয়ার জনসংখ্যার সমান। দেশের দরিদ্র জনসংখ্যার এক বিরাট অংশ যাতায়াতের জন্য ট্রেনে চড়েন।

বেশ কয়েক দশক ধরে নানা সমস্যায় পড়েছে ভারতীয় রেল। তাই ট্রেন চালানো থেকে স্টেশনের আধুনিকীকরণ, প্রতিটি বিষয়েই বেসরকারি পুঁজিকে আহ্বান করেছে মোদী সরকার।

করোনা অতিমহামারীর ফলে এই প্রথমবার সংকুচিত হচ্ছে দেশের অর্থনীতি। এই অবস্থায় সরকারের পক্ষে রেলের জন্য বেশি বরাদ্দ করা সম্ভব নয়। রেল পরিষেবা চালু রাখার জন্য বেসরকারি পুঁজি আহ্বানের সেটাও একটা কারণ।

জুলাই মাসে সরকার ঘোষণা করে, বেসরকারি সংস্থাকে ১৫১ টি যাত্রীবাহী ট্রেন চালানোর অনুমতি দেওয়া হবে। নয়াদিল্লি ও মুম্বই রেল স্টেশনের আধুনিকীকরণের দায়িত্বও বেসরকারি হাতে দেওয়ার কথা বলা হয়।