ছত্তিশগড়ের মাওবাদী হামলায় নিহত ২২ জোয়ান: কীভাবে কারা করল হামলা! উঠে এলো প্রাথমিক রিপোর্ট

ছত্তিশগড়ের মাওবাদী হামলায় নিহত ২২ জোয়ান: কীভাবে কারা করল হামলা! উঠে এলো প্রাথমিক রিপোর্ট

 

 

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: মাওবাদীদের সঙ্গে এনকাউন্টারে শনিবার সিআরপিএফ-এর ২২ জন জওয়ানের মৃত্যু হয়। আরও ৩১ জন গুরুতর আহl হয়েছেন। অন্যদিকে নিরাপত্তা বাহিনী সুকমা-বিজাপুর সীমান্তে তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে। যেখানে এই হামলার ঘটনা ঘটে। অন্যদিকে হামলার নেতৃত্বে কে ছিল তাও জানার চেষ্টা করছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা।

 

 

গোয়েন্দা সূত্রে জানা যাচ্ছে, মাওবাদী নেতা হিদমা সঙ্গীদের নিয়ে সেখানে ফাঁদ পেতেছিল। গোয়েন্দা সূত্রে খবর পাওয়ার পরে ছত্তিশগড়ের জঙ্গলে তল্লাশি অভিযান শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী। কিন্তু সেই জায়গাতেই মাওবাদীরা বড় সংখ্যায় অপেক্ষা করছিল। মাওবাদীরা নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে এই জায়গাতেই তিনঘন্টার ওপরে গুলির যুদ্ধ চালায়। এখনও পর্যন্ত এক জওয়ানের খোঁজ পাওয়া যায়নি বলেই জানা গিয়েছে।

 

 

জানা গিয়েছে, হিদমার বয়স ৪০ বছরের আশপাশে। সে সুকমার পুভার্টি গ্রামের আদিবাসী। নব্বইয়ের দশকে সে মাওবাদীদের দলে নাম লেখায়। তার অপর নাম হল হিদমান্না। সে এই মুহুর্তে পিপলস লিবারেশন গেরিলা আর্মির প্রধান। আক্রমণের ভয়াবহতা এবং মারাত্মক আক্রমণের জন্য সে পরিচিত। তাঁর দলে রয়েছে ১৮০ থেকে ২৫০ জনের সশস্ত্র মাওবাদী। দলে মহিলা সদস্যরাও রয়েছেন। হিদমা মাওবাদীদের দণ্ডকারণ্য স্পেশাল জোনাল কমিটির সদস্যও বটে।

 

পাশাপাশি মাওবাদীদের ২১ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটির সব থেকে কমবয়সী সদস্য। অন্যদিকে অসমর্থিত সূত্রের খবর তাকে মাওবাদীদের কেন্দ্রীয় মিলিটারি কমিশনের প্রধান পদেও নিয়োগ করা হয়েছে। তবে তার কোনও সাম্প্রতিক ছবি পাওয়া যায়নি। এই মুহুর্তে তার মাথার দাম ৪০ লক্ষ টাকা। ভিম মাণ্ডভী হত্যা কাণ্ডে তার বিরুদ্ধে এনআইএ চার্জশিট দাখিল করেছে।

 

 

প্রতিবছর জানুয়ারি থেকে জুনের মধ্যে মাওবাদীরা তাদের ট্যাকটিক্যাল কাউন্টার অফেনসিভ ক্যাম্পেন চালায়। এই সময়ই তারা নিরাপত্তা বাহিনীকে টার্গেট করে। এর আগেও গ্রীষ্মেই একাধিক হামলা সংগঠিত করেছে।

 

গত মার্চে সুকমার মিনাপায় হামলা চালিয়ে ১৭ জনকে হত্যা করেছিল মাওবাদীরা। ২০১৯-এর এপ্রিলে দান্তেওয়াড়ায় বিজেপি বিধায়ক ভিমা মাণ্ডভী, তাঁর চালক এবং তিন নিরাপত্তারক্ষীকে হত্যা করেছিল মাওবাদীরা। ২০১০-এর এপ্রিলে সুকমার টাডমেটলায় মাওবাদীরা সিআরপিএফ-এর ৭৬ জন জওয়ানকে হত্যা করেছিল।