বিজেপির বিরুদ্ধে যারা, তাদের সবাইকে একজোট হতে হবে: মমতার সঙ্গে বৈঠকের পর মন্তব্য শরদ পাওয়ারের

বিজেপির বিরুদ্ধে যারা, তাদের সবাইকে একজোট হতে হবে: মমতার সঙ্গে বৈঠকের পর মন্তব্য শরদ পাওয়ারের

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: “বিজেপির বিরুদ্ধে যারা, তাদের সবাইকে একজোট হতে হবে। বিজেপিকে রুখতে সমমনোভাবাপন্ন দলগুলিকে এক হতে হবে।” মমতার সঙ্গে বৈঠকের পরে জানিয়ে দিলেন শরদ পাওয়ার । এদিন মুম্বইয়ে এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ারের সঙ্গে প্রায় ১ ঘণ্টা ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন দুজন। সেখানেই একথা জানান শরদ পাওয়ার। এরপর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “যে যেখানে শক্তিশালী, তাকে নিয়েই লড়াই করতে হবে। কেউ লড়তে না চাইলে, কী করব, আমাদের লড়াই করতে হবে।” “এখন ইউপিএ (UPA) বলে কিছু নেই,” বিরোধী মুখ নিয়ে মন্তব্য মমতার।

গতকালই মুম্বই পৌঁছন তৃণমূল নেত্রী। পূর্ব নির্ধারিত সফরসূচি অনুযায়ী, আজ দুপুর ১ টায় নরিম্যান পয়েন্টের ওয়াই বি চ্যবন সেন্টারে বিদ্বজ্জনেদের সঙ্গে বৈঠক করেন তৃণমূল নেত্রী। শরদ পাওয়ারের সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠকের আগে ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেন এনসিপি নেতা নবাব মালিক। তিনি বলেন, “কংগ্রেস ছাড়া বিজেপি-বিরোধী জোট সম্ভব নয়।” নবাব মালিক বলেন, “মেঘালয়ে কয়েকজন কংগ্রেস বিধায়ক তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। তৃণমূল গোয়াতেও গিয়েছে। সব রাজনৈতিক দলেরই সংগঠন বিস্তারের অধিকার রয়েছে। তবে আমরা মনে করি, কংগ্রেসকে বাইরে রেখে বিজেপি-বিরোধী কোনও জোট সম্ভব নয়।”

এনসিপি নেতার মতে, “আমাদের নেতা শরদ পাওয়ার একাধিকবার এই কথা বলেছেন। ২০২৪-এর লোকসভা ভোটের আগে বিরোধী ঐক্য গড়ে তুলতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।তবে তাঁর মুম্বই সফর চলাকালীন এই মন্তব্য করে বিরোধী জোট নিয়ে বিতর্ক উসকে দিলেন এনসিপি নেতা নবাব মালিক।” লোকসভা ভোটকে পাখির চোখ করে বিভিন্ন রাজ্যের বিজেপি বিরোধী আঞ্চলিক শক্তিগুলিকে একজোট করার বিষয়ে চেষ্টা করছেন মমতা, এমনটাই মনে করা হচ্ছে।