ব্রান্ডেড ফকিরের সূর্য গ্রহণ দেখতে লাগল দেড় লাখি চশমা: সমালোচনা নেটিজেনদের

ব্রান্ডেড ফকিরের সূর্য গ্রহণ দেখতে লাগল দেড় লাখি চশমা: সমালোচনা নেটিজেনদের

 

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: উপলক্ষ যাই হোক, খবরে থাকেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বৃহস্পতিবার চশমা পরে দেখলেন সূর্যগ্রহণ। সেই চশমাটিই হয়ে উঠেছে বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দু। নেটিজেনদের একাংশের দাবি, রোদ চশমাটি একটি জার্মান সংস্থার। যার মূল্য ভারতীয় মুদ্রায় কম করে দেড় লক্ষ টাকা।

এদিন কেরলের কোঝিকোড় থেকে সূর্যগ্রহণ দেখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ”প্রতিটি ভারতীয়র মতো সূর্যগ্রহণ নিয়ে আমিও অত্যন্ত উত্সাহী ছিলাম। কিন্তু আকাশে মেঘ থাকায় গ্রহণ দেখার সৌভাগ্য হল না। তবে কিছুক্ষণ দেখেছি। দেশের অন্যান্য অংশের গ্রহণ দেখেছি লাইভ স্ট্রিমিংয়ে। বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করে সমৃদ্ধ হয়েছি।”

এর সঙ্গেই কিছু ছবিও দিয়েছেন মোদী। সেই ছবিতেই দেখা যাচ্ছে বহুমূল্যের রোদ চশমা পরে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। নেটিজেনদের দাবি, মেব্যাক আইওয়্যারের রোদ চশমা পরেছেন নরেন্দ্র মোদী। খোদাই রয়েছে আর্টিস্ট ভি। ফ্রেমটি টাইটানিয়ামের। এর সঙ্গে রয়েছে কাঠ বা পশুর শিং। ৬টি রঙে পাওয়া যায় রোদ চশমাটি। ৪০ মার্কিন ডলার থেকে ৩২৫ মার্কিন ডলার জাম হতে পারে লেন্সের। মোদী যে চশমাটি পরেছেন তার দাম ১৯৯৫ মার্কিন ডলার, ভারতীয় মুদ্রায় ১,৪২,১৪৮ টাকা।

বিভিন্ন সভায় নিজেকে ফকির বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী। কখনও বলেছেন,’কোনও কিছুতেই লোভ নেই তাঁর, ঝোলা নিয়ে ঝোলা নিয়ে চলে যাবেন।’ কখনও দাবি করেছেন, ৩৫ বছর বয়স পর্যন্ত তাঁর কাছে এক টাকাও থাকত না। ওই মন্তব্যের জের টেনেই এদিন নেটিজেনদের খোঁচা, ‘নরেন্দ্র মোদী আসলে ব্র্যান্ডেড ফকির।’