নন্দীগ্রামে প্রচারের শেষ লগ্নে হুইল চেয়ার ছেড়ে উঠে দাঁড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি

নন্দীগ্রামে প্রচারের শেষ লগ্নে হুইল চেয়ার ছেড়ে উঠে দাঁড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: অবশেষে হুইল চেয়ার ছেড়ে উঠে দাঁড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নন্দীগ্রামের শেষ দিনের প্রচারে তিনি শেষ জনসভা করেন নন্দীগ্রামের টেঙ্গুয়াতে। সেখানে নিজের ভাষণ শেষে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার জন্য হুইল চেয়ার ছেড়ে উঠে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেন। এরপরই তিনি নিজে নিজেই হুইল চেয়ার থেকে উঠে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেন।

সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে সাহায্যের জন্য ছুটে আসেন পাশে থাকা সুব্রত বক্সী, জয়া দত্ত, দোলা সেনরা। কিন্তু তৃণমূল নেত্রী তাঁদের বলেন, ‘একটু চেষ্টা করি না?’ এবং ধীরে ধীরে নিজের চেষ্টাতেই উঠে দাঁড়ান। পরে দাঁড়িয়েই জাতীয় সঙ্গীতে গলা মেলালেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উল্লাসে ফেটে পড়লেন সেখানে উপস্থিত তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা।

উল্লেখ্য, গত ১০ মার্চ নন্দীগ্রামের বিরুলিয়া বাজারেই আহত হয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী। তড়িঘড়ি তাঁকে নিয়ে আসা হয় কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে। দুদিন ভর্তি থাকার পর পায়ে প্লাস্টার নিয়ে তিনি বাড়ি ফেরেন হুইল চেয়ারে বসেই। এরপর থেকে আজও তিনি হুইল চেয়ারেই চলাফেরা করছিলেন। মঙ্গলবারও টেঙ্গুয়ার জনসভায় তিনি হুইল চেয়ারে বসেই আসেন। কিন্তু সভা শেষের পর জাতীয় সঙ্গীত গাইতে নিজের পায়েই উঠে দাঁড়ালেন আহত হওয়ার ২০ দিন পর।