তদন্তে অসহযোগিতার পরও লখিমপুর কৃষক হত্যাকাণ্ডে মন্ত্রী পুত্রকে পুলিশী হেফাজতে না নিয়ে জেল হেফাজতে কেন? উঠছে প্রশ্ন

তদন্তে অসহযোগিতার পরও লখিমপুর কৃষক হত্যাকাণ্ডে মন্ত্রী পুত্রকে পুলিশী হেফাজতে না নিয়ে জেল হেফাজতে কেন? উঠছে প্রশ্ন

 

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: দীর্ঘ টালবাহানার পর লখিমপুর কৃষক হত্যাকাণ্ডে গ্রেফতার হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রর ছেলে আশিস মিশ্র। শনিবারই পুলিশের কাছে হাজিরা দেয় আশিস। আদালত তাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে পাঠিয়েছে। ঘটনার প্রেক্ষিতে আইনজীবী মহল প্রশ্ন তুলেছেন, কেন খুনের মামলায় অভিযুক্ত আশিসকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হল না। এই ঘটনার তদন্তে নিশ্চিতভাবেই আশিসকে আরও জেরা করা প্রয়োজন ছিল। কিন্তু পুলিশি হেফাজতে না নিয়ে কেন তাকে প্রথমেই জেল হেফাজতে পাঠানো হল।

 

শুধু তাই নয়, জেলের ভিতরে আশিসের জন্য বিশেষ ব্যবস্থাও থাকবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত একজন বন্দি বিশেষ সুবিধা পাবে। এর একমাত্র কারণ আশিস বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে। বাবা ও ছেলে দু’জনেই প্রভাবশালী ব্যক্তি। অনেকেই নাম গোপন করে বলেছেন, বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের অঙ্গুলিহেলনেই চলছে উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ সরকার ও পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে সময় পুলিশের সঙ্গে চূড়ান্ত অসহযোগিতা করে মন্ত্রীপুত্র।

 

 

তার পরেও কেন আশিসকে পুলিশ হেফাজতে না দিয়ে সরাসরি জেল হেফাজতে পাঠানো হল তা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। বিরোধীদের অভিযোগ, বিজেপি নেতা তথা মন্ত্রীপুত্র বলেই আদালতে নিজেদের দায় ঝেড়ে ফেলতে তৎপর ছিল যোগীর পুলিশ। যার জেরেই পুলিশি হেফাজতের পরিবর্তে জেল হেফাজত হয়েছে আশিসের।