বিদ্বেষ মনোভাব নিয়ে পপুলার ফ্রন্টের অফিসে ইডি’র হানা : প্রতিবাদে গর্জে উঠলো গোটা দেশ

বিদ্বেষ মনোভাব নিয়ে পপুলার ফ্রন্টের অফিসে ইডি’র হানা : প্রতিবাদে গর্জে উঠলো গোটা দেশ

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া ভারতের সামাজিক সংগঠন রূপে বিভিন্ন কাজ লক্ষ্য করা ।দুস্থ অসহায় ,পিছিয়ে পড়া মানুষের সামাজিক ,অর্থনৈতিক, শিক্ষা ,প্রাকৃতিক দুর্যোগে মানুষদের সহায়তা সহ সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্বে আন্দোলন সহ বিভিন্ন কর্মসূচি লক্ষ্য করা যায় ।বরাবরই সংগঠনটিকে হিন্দুত্ববাদী ফ্যাসিবাদী শক্তির বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে দেখা ।আর এই কারণেই বর্তমান বিজেপি সরকার বিভিন্ন ভাবে পপুলার ফ্রন্টের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দেশবিরোধী কর্মকান্ডের যুক্ত থাকার অভিযোগ করা হয় ।যদিও সরকারের করা সমস্ত অভিযোগই আদালতে ভিত্তিহীন বলে প্রমাণিত হয় ।এনআরসি বিরোধী আন্দোলনে মদত ,হাথরাস কাণ্ডে সরকারের অপপ্রচার করার জন্য একশো কোটি টাকার বিনিয়োগ সহ বিভিন্ন অভিযোগ আনা হয় পপুলার ফ্রন্টের বিরুদ্বে ।
কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষক আইনের বিরুদ্ধে দিল্লিতে যখন হাজার হাজার কৃষক যখন দিল্লি অবরুদ্ধ করে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্চে ঠিক সেই মুহূর্তে ভারতের ২৬ টি পপুলার ফ্রন্টের অফিসে হানা দেয় কেন্দ্রীয় সংস্থা ইডি ।
বৃহস্পতিবার সকাল সকাল পপুলার ফ্রন্টের বিভিন্ন রাজ্যের অফিস গুলিতে ইডির অফিসাররা তল্লাশি চালায় ।পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা ও মুর্শিদাবাদের অফিসে দিনভর তল্লাশি চালানো হয় ।যদিও ইডির তল্লাশিতে কোন প্রকার অবৈধ সামগ্রী পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন ইডির কর্মকর্তারা ।
অগণতান্ত্রিক ভাবে পপুলার ফ্রন্টের অফিস গুলিতে ইডির তল্লাশির প্রতিবাদে গোটা দেশে প্রতিবাদে নামে সংগঠনের সদস্যরা ।কেরালা ,কর্ণাটক ,তামিলনাড়ু ,বিহার মহারাষ্ট্র সহ বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভ প্রদর্শন লক্ষ্য করা যায় ।পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা সহ মুর্শিদাবাদের ইসলামপুর ,ধূলিয়ান ,বহরমপুরে প্রতিবাদ কর্মসূচি লক্ষ্য করা গেছে।
পপুলার ফ্রন্টের নেতৃত্বের দাবি কেন্দ্রীয় সরকার সাংবিধানিক সংস্থা ইডিকে রাজনৈতিক স্বার্থে ব্যাবহার করতে চাইছে ।নেতারা আরও জানান দেশজুড়ে যখন কৃষক আন্দোলনে উত্তাল তখন বিজেপি সরকার জনগনের মোড় অন্য দিকে ঘোরাতেই পপুলার ফ্রন্টের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চালাচ্চে কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকার ।দেশজুড়ে পপুলার ফ্রন্ট সর্বদা ন্যায় প্রতিষ্ঠার আন্দোলন করে থাকে আর এই ন্যায়ের আওয়াজ দমাতে সরকার সর্বদা কন্ঠরোধ করতে চাইছে বলে জানান পপুলার ফ্রন্টের নেতৃত্ব। সরকার যতই পপুলার ফ্রন্টকে দমাতে চেষ্টা করুক ন্যায়ের আওয়াজ সর্বদা জারি থাকবে বলে জানান সংগঠনের নেতারা ।
পিএফআইয়ের চেয়ারম্যান ওএমএ সালাম টুইট করেন,’পিএফআই নেতাদের বাড়িতে তল্লাশি চালাচ্ছে ইডি। এটা আসলে বিজেপি সরকারের ব্যর্থতা ও কৃষক আন্দোলন থেকে নজর ঘোরানোর একটা ঘৃণ্য প্রচেষ্টা। সাংবিধানিক সংস্থাকে রাজনৈতিক হাতিয়ার বানানোর একটা জলন্ত উদাহরণ। তবে এই ধরনের পদক্ষেপ আমাদের ন্যায়ের জন্য লড়াইকে রুখতে পারবে না।’