টানা ৫ দিনে ক্রমশ তীব্র হচ্ছে কৃষক বিক্ষোভ: শেষ ২৪ ঘণ্টায় দুবার কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে অমিত শাহ

    টানা ৫ দিনে ক্রমশ তীব্র হচ্ছে কৃষক বিক্ষোভ: শেষ ২৪ ঘণ্টায় দুবার কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে অমিত শাহ

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: গত পাঁচ দিন ধরে চলা কৃষক বিক্ষোভের জেরে দিল্লি কার্যত অবরুদ্ধ। দিল্লিগামী একাধিক সীমান্ত অঞ্চলে সমস্ত প্রশাসনিক বাধা উপেক্ষা করে কৃষক বিক্ষোভ চলছে। এর মাঝেই সোমবার সকালে কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কৃষকরা অমিত শাহের আবেদন প্রত্যাখ্যান করার পর শেষ ২৪ ঘণ্টায় এই নিয়ে দ্বিতীয়বার কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করলেন তিনি।

    গতকাল রাতে বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডার দিল্লির বাড়িতে বৈঠকে বসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার, কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং প্রমুখ। বিক্ষুব্ধ কৃষকরা তাঁদের দিল্লি ঢুকতে না দিলে দিল্লিমুখী পাঁচটি রাস্তা বন্ধ করে আন্দোলন করার হুঁশিয়ারি দিলে জরুরি ভিত্তিতে বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্ব।

    কৃষকরা গতকাল জানিয়েছেন তাঁদের দাবী মানা না হলে তাঁরা সোনেপথ, রোহতক, জয়পুর, গাজিয়াবাদ-হাপুর এবং মথুরা সীমান্ত আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখাবেন। উল্লেখ্য, এর আগে বিজেপি শাসিত হরিয়ানা সরকার বিক্ষোভরত কৃষকদের আটকাতে লাঠি চার্জ, জলকামান, টিয়ার গ্যাস, রাস্তা কাটা সহ একাধিক পদ্ধতি প্রয়োগ করে। যদিও সমস্ত বাধা অতিক্রম করে আন্দোলনরত কৃষকরা দিল্লি সীমান্তে এসে উপস্থিত হয়। এরপর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কৃষকদের সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব দিলে আন্দোলনরত কৃষকরা কোনো শর্তের বিনিময়ে আলোচনায় বসতে অস্বীকার করেন।

    আন্দোলনরত কৃষকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, তাঁরা কোনোভাবেই সরকারের প্রস্তাবিত বুরারি গ্রাউন্ডে গিয়ে তাঁদের আন্দোলন চালাবেন না। তাঁরা পূর্ব ঘোষণা মত হয় যন্তর মন্তর অথবা রামলীলা ময়দানে গিয়েই তাঁদের বক্তব্য পেশ করবেন।