যোগী সরকারের রোষানলে প্রাক্তন সাংসদ আতিক আহমেদ: বাজেয়াপ্ত ঘোষণা করে ভেঙে দেওয়া হচ্ছে একের পর এক প্রতিষ্ঠান

যোগী সরকারের রোষানলে প্রাক্তন সাংসদ আতিক আহমেদ: বাজেয়াপ্ত ঘোষণা করে ভেঙে দেওয়া হচ্ছে একের পর এক প্রতিষ্ঠান

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: ক্ষমতায় আসার পর থেকেই যোগী আদিত্যনাথের সরকার মুসলিমদের প্রতি যে হিংসাত্মক মনোভাব পোষণ করে চলেছে তার সারা দেশে নজিরবিহীন। ক্ষমতায় আসার পর থেকে যোগী আদিত্যনাথের সরকার একের পর মুসলিম ব্যাক্তিত্ব ও সংগঠনকে সরকার বিরোধী আখ্যা দিতে উঠে পড়ে লেগেছে। সে ডা কাফিল খান হোক বা সিএএ বিরোধী আন্দোলনকারী হোক। সম্প্রতি যোগী প্রশাসন প্রাক্তন সাংসদ আতিক আহমেদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে নেমেছে। আতিক আহমেদকে যোগী প্রশাসন মাফিয়া ঘোষণা করে দিয়েছে এবং তদন্তে নেমে বহু সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে।

বাজেয়াপ্ত করার পর আতিক আহমেদের বিল্ডিংগুলিকে এতদিন পর্যন্ত বুলডজার লাগিয়ে ভাঙা হচ্ছিল। তবে ডিনামাইট লাগিয়ে আতিক আহমেদের অবৈধ বিল্ডিংগুলি উড়িয়ে দেওয়া হবে বলে জানা যাচ্ছে। বিগত ২ সপ্তাহে আতিক আহমেদের প্রায় ১১ টি বিল্ডিংকে ভেঙে ফেলা হয়েছে।

একই সাথে আতিক আহমেদের ১১ টি সম্পত্তিকে সিজ করে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এখন ডায়নামাইট লাগিয়ে বেশকিছু বিল্ডিংকে ধ্বংস করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। এর জন্য প্রশাসন প্রস্তুতি নিচ্ছে। ডায়নামাইট বিস্ফোরণের দরুন আশেপাশের কারোর সম্পত্তির ক্ষতি হতে পারে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এর জন্য একটা বিশেষজ্ঞ টিম তৈরি করা হয়েছে। যাদের পর্যবেক্ষনে পুরো পক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে বলে খবর আসছে। প্রয়াগরাজ থেকে ২০ কিমি দূরে আতিক আহমেদের ৪” বিঘা জমির খোঁজ পাওয়া গেছে। যেখানে আতিক আহমেদ ৫ তলা কোল্ড স্টোরেজ বানিয়ে রেখেছে। আশেপাশের জেলার মধ্যে এটাই সবথেকে বড়ো কোল্ড স্টোরেজ। সেই কোল্ড স্টোরেজকে ডায়নামাইট লাগিয়ে উড়িয়ে দেওয়ার প্রস্তুতিতে নেমেছে যোগী প্রশাসন।