চ্যাংড়া ছেলে, বাঁচাল ছেলে ! মমতা ব্যানার্জির মন্তব্যের বিরুদ্ধে মিথ্যাবাদী, ধাপ্পাবাজ বলে আক্রমণ আব্বাস সিদ্দিকীর

চ্যাংড়া ছেলে, বাঁচাল ছেলে ! মমতা ব্যানার্জির মন্তব্যের বিরুদ্ধে মিথ্যাবাদী, ধাপ্পাবাজ বলে আক্রমণ আব্বাস সিদ্দিকীর

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: কিছুদিন আগেই রাজ্যের বিভিন্ন নির্বাচনী জনসভা থেকে নাম না করে আব্বাস সিদ্দিকীকে চ্যাংড়া ছেলে, সুবিধাবাদী ছেলে, বাঁচাল ছেলে বলে আক্রমন করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তার পাল্টা জবাব দিতে বেশি দেরী করেনি আব্বাস সিদ্দিকী। এদিন সেই কথা মনে করিয়ে আব্বাস তৃণমূল নেত্রীকে আক্রমন করে জানিয়েছেন, ‘ উনি আমাকে চ্যাংড়া ছেলে বলেছেন। বদ ছেলে বলেছেন, আমি কাউকে ব্যক্তি আক্রমণে বিশ্বাস করিনা। নইলে এখানে অনেকে অনেক কিছু করে বলতেই পারতাম। উনি বলছেন আমি সংখ্যালঘু ভোট ভাগ করতে নেমেছি। উনি বিজেপির প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর সঙ্গে মিলে জোটে ছিলেন। উনি একাধিকবার কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে সমর্থন করেছেন। এখন উনি বিজেপি বিরোধী অভিনয় করছেন উনি আসলে মিথ্যাবাদী, ধাপ্পাবাজ।’

বৃহস্পতিবার ভাঙড়ের ভোজেরহাটে ও দেগঙ্গায় জনসভা করে আইএসএফ নেতা আব্বাস সিদ্দিকি আরও বলেন, ‘এনআরসি, এনপিআর-এর সময় যে প্রতিবাদ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত গিয়েছিল ভাঙড় থেকে তাকেই প্রার্থী করেছে আইএসএফ।’ ভাঙড় থেকে সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত আইএসএফ প্রার্থী হয়েছেন আব্বাসের ভাই দলের চেয়ারম্যান নওশাদ সিদ্দিকী।

এদিন আব্বাস সিদ্দিকী আরও জানিয়েছেন, ‘দিদি বলেন উনি বাংলায় এনআরসি করতে দেননি। আপনারা চিটিংবাজকে চিনতে পারছেন? ২০০৫ সালে পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি করার জন্য লোকসভার স্পিকারের মুখে কাগজ ছুঁড়ে মেরেছিল এই মমতা ব্যানার্জি। মে ভিডিও ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে, বাংলার মানুষ তা দেখেছে। ধোঁকাবাজ কে চিনতে পারছেন?’ এদিন ভাঙড়ের ভোজেরহাটে ও দেগঙ্গার জনসভায় উপচে পড়া ভিড় হয়। এবং বিভিন্ন স্থানে আইএসএফ কর্মীদের উপর শাসকদলের অত্যাচারের বিরুদ্ধে জোরালো আওয়াজ তোলেন আব্বাস সিদ্দিকী।