ইয়াস পরবর্তী বিপর্যয় নিয়ে হিঙ্গলগঞ্জ- সাগরে বৈঠক: প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে না থাকলেও দেখা করে ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ দেবেন মুখ্যমন্ত্রী

ইয়াস পরবর্তী বিপর্যয় নিয়ে হিঙ্গলগঞ্জ- সাগরে বৈঠক: প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে না থাকলেও দেখা করে ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ দেবেন মুখ্যমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পর্যালোচনা বৈঠকে থাকছেন না। তবে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস এবং ভরা কোটালের প্রভাবে রাজ্যে কোথায়, কী ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, সেই সংক্রান্ত হিসাব প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেবেন। নিজেই সে কথা জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শুক্রবার উঃ ২৪ পরগনার হিঙ্গলগঞ্জে ও দঃ ২৪ পরগনার সাগরে ইয়াস পরবর্তী বিপর্যয় নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেন, ‘আমাদের কলাইকুন্ডায় যেতে হবে। ৪৫ মিনিট লাগবে এবং আমাদের একটা কাগজ দিতে হবে। তাই মাত্র ১৫ মিনিটের জন্য যেতে হবে। কারণ আমি পর্যালোচনা বৈঠকে থাকছি না। আমি শুধু কাগজটা দেব, কোথায়, কী ক্ষতি হয়েছে। যতটা এখনও পর্যন্ত আছে।’

ইয়াস পরিস্থিতি পর্যালোচনায় শুক্রবার দুপুরে কলাইকুন্ডায় আসবেন মোদী। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ খতিয়ে দেখতে সেখানে একটি বৈঠক করবেন। সেই বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর থাকার কথা ছিল। মোদীর সঙ্গে বৈঠকের কথা বৃহস্পতিবার বিকেলে নিজেও জানিয়েছিলেন মমতা। কিন্তু রাতের দিকে পট পরিবর্তন হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের তরফে নবান্নকে জানানো হয়, বৈঠকে থাকবেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী, নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু। তৃণমূল সূত্রের খবর, ধনখড় এবং দেবশ্রীর নিয়ে কোনও আপত্তি জানাননি মমতা। কিন্তু শুভেন্দু কোন যুক্তিতে থাকবেন, তা নিয়েই বেঁকে বসেন মমতা।

তবে সূত্রের খবর, দুপুর মোদী যখন কলাইকুন্ডায় নামবেন, তখন তাঁর সঙ্গে দেখা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী এবং মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে মিনিট পনেরোর বৈঠক হবে। ইয়াসে কত ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা প্রধানমন্ত্রীকে জানালেন। তবে মোদীর পৌরহিত্যে পর্যালোচনা বৈঠকে থাকবেন না মমতা।