প্রয়োজনে আদালতে যাবো! রাজ্যপালকে ফোন: নন্দীগ্রাম ভোটের অস্থিরতা নিয়ে মমতা ব্যানার্জির প্রতিক্রিয়া

    প্রয়োজনে আদালতে যাবো! রাজ্যপালকে ফোন: নন্দীগ্রাম ভোটের অস্থিরতা নিয়ে মমতা ব্যানার্জির প্রতিক্রিয়া

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: নন্দীগ্রামে মুখোমুখি লড়াইয়ে অবতীর্ণ হয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো তথা বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং একসময় তাঁরই সেনাপতি শুভেন্দু অধিকারী। ফলে বাংলার সীমানা ছাড়িয়ে সারাদেশের নজরেই আছে নন্দীগ্রামে। আজ (বৃহস্পতিবার) নন্দীগ্রাম ছাড়াও বাংলার চার জেলার ২৯ টি আসনে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। সবমিলিয়ে দ্বিতীয় দফায় রাজ্যের ৩০ টি আসনে ১৭১ জন প্রার্থীর ভাগ্যপরীক্ষা হতে চলেছে।

    বয়ালে রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে উঠল পরিস্থিতি। বয়ালে শংকরবেতার গ্রামের সাত নম্বর বুথে আসেন মমতা। তৃণমূলের অভিযোগ, ভোট লুঠ করা হয়েছে। তৃণমূলের এজেন্টকে বসতে দেওয়া হয়নি। মমতা বুথে থাকাকালীন বুথের বাইরে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দেওয়া হয়। বুথের বাইরে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে পরিস্থিতি। কার্যত হাতাহাতির পরিস্থিতি তৈরি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় র‌্যাফ নামানো হয়েছে। বিজেপির অভিযোগ, বহিরাগতদের নিয়ে এসেছেন মমতা।

    নন্দীগ্রামে ১ ডজন বুথে রিগিংয়ের অভিযোগ, বিজেপির বিরুদ্ধে কমিশনে অভিযোগ তৃণমূলের। নন্দীগ্রামের সমস্ত বিষয় জানিয়ে রাজ্যপালকে ফোন মমতা ব্যানার্জির। মমতা ব্যানার্জি বললেন প্রয়োজনে আদালতে যাবো, অমিত শাহের অঙ্গুলি হেলনে কেন্দ্রীয় বাহিনী কাজ করছে।