পাঞ্জাবে অমরিন্দর সিংয়ের কংগ্রেস ছাড়ার ঘোষনার পরেই সুর নরম সিধুর: অবস্থা স্বাভাবিকের দিকে

পাঞ্জাবে অমরিন্দর সিংয়ের কংগ্রেস ছাড়ার ঘোষনার পরেই সুর নরম সিধুর: অবস্থা স্বাভাবিকের দিকে

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: ‘বারবার অপমানিত হয়েছি। কংগ্রেসে আর নয়।’ অমিত শাহর সঙ্গে সাক্ষাতের একদিন বাদে ঘোষণা করলেন পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। তবে, তিনি বিজেপিতে যোগ দেবেন না বলেই দাবি করেছেন পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিকে, অমরিন্দর যখন কংগ্রেস ত্যাগ করার কথা ঘোষণা করে দিলেন, তখনই সিধু আবার সুর নরম করার ইঙ্গিত দিলেন। সিধুর ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, তিনি শর্তসাপেক্ষে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদে থাকতে প্রস্তুত। সিধু নিজেও আজ মুখ্যমন্ত্রী চরণজিত সিং চান্নির সঙ্গে দেখা করতে রাজি হয়েছেন। সূত্রের খবর, সিধুর কয়েকটি শর্ত মেনে নিতে রাজি কংগ্রেস হাই কম্যান্ড। তবে, সব শর্ত মানা হবে না। তাতে যদি সিধু রাজি না হন, তাহলে বিকল্প রাস্তাও ভেবে রাখা হয়েছে।

গত দু’দিন একের পর এক নাটকীয় মোড় দেখেছে পাঞ্জাবের রাজনীতি। প্রথমে অমরিন্দর সিংয়ের ইস্তফা, নতুন মুখ্যমন্ত্রী নিয়োগ, অমরিন্দরের বিজেপি যোগের জল্পনা এবং তার মধ্যেই প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সিধুর ইস্তফা। দুরন্ত গতিতে ঘটতে থাকা ঘটনাপ্রবাহ ক্রমশ যবনিকার দিকে এগোচ্ছে। ক্রমেই যেন বিজেপির দিকে ঝুঁকছেন পাঞ্জাবের ক্যাপ্টেন। আর যাবতীয় ‘আন্দোলন সমাপ্ত’ করে কংগ্রেসের প্রদেশ সভাপতির পদে বহাল থাকার ইঙ্গিত দিচ্ছেন সিধু।

সিধুর ইস্তফার দিনই দিল্লি গিয়েছেন অমরিন্দর সিং। বুধবার সন্ধেয় তিনি দেখা করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গে। ক্যাপ্টেনের ঘনিষ্ঠ সূত্রে বলা হয়, এটি রাজনৈতিক সাক্ষাৎ নয়। অমিত শাহর সঙ্গে দেখা করে কৃষি আইন বাতিলের দাবি জানিয়েছেন পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তখনকার মতো জল্পনা থামলেও আজ ফের জল্পনা উসকে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সঙ্গে দেখা করতে যান অমরিন্দর।

সাক্ষাৎ শেষে জানিয়ে দেন,”আমি কংগ্রেস ছাড়ছি। যে দলে আমাকে বিশ্বাস করা হয় না, অপমান করা হয়, সেখানে আমি থাকব না।” যদিও, গেরুয়া শিবিরে যোগদানের জল্পনা উড়িয়ে তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, বিজেপিতে যোগ দেবেন না।