বাকস্বাধীনতার পক্ষে অদম্য লড়াই: একুশে শান্তিতে নোবেল পেলেন দুই সাংবাদিক

বাকস্বাধীনতার পক্ষে অদম্য লড়াই: একুশে শান্তিতে নোবেল পেলেন দুই সাংবাদিক

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: চলতি ২০২১ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন দুই সাংবাদিক। তারা হলেন- ফিলিপাইনের সাংবাদিক মারিয়া রেসা ও রাশিয়ার দিমিত্রি মুরাতভ।

নরওয়ের নোবেল কমিটি শুক্রবার (৮ অক্টোবর) অসলোতে এক সংবাদ সম্মেলনে ১০২তম নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য তাদের নাম ঘোষণা করে।
নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি জানিয়েছে, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, যা গণতন্ত্র ও টেকসই শান্তির অন্যতম পূর্বশর্ত, তার পক্ষে লড়াইয়ের স্বীকৃতি হিসেবে মারিয়া ও দিমিত্রিকে এবার শান্তিতে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

১৯৩৫ সালের পর এই প্রথম শান্তিতে নোবেল পেলেন কোনো সাংবাদিক। ১৯৩৫ সালে জার্মান সাংবাদিক কার্ল ফন অসিয়েতস্কি শান্তিতে নোবেল পান।

মারিয়ার ক্ষেত্রে নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি বলেছে, তিনি তাঁর জন্মস্থান ফিলিপাইনে ক্ষমতার অপব্যবহার, সহিংসতার ব্যবহার ও দেশটিতে ক্রমেই বেড়ে চলা কর্তৃত্ববাদের বিরুদ্ধে মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে ব্যবহার করছেন।

দিমিত্রি ক্ষেত্রে নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি বলেছে, তিনি তাঁর দেশ রাশিয়ায় ক্রমবর্ধমান চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতির মধ্যে কয়েক দশক ধরে বাকস্বাধীনতা রক্ষায় কাজ করছেন।
পুরস্কার পাওয়ার পর দিমিত্রি আন্দ্রেইভিচ মুরাতভ বলেন, আমি মনে করি এই পুরস্কারের কারণে আমি কর্তৃপক্ষের হামলা থেকে সুরক্ষিত থাকব। এই পুরস্কার আমাদের জন্য শুধু গুরুত্বপূর্ণ নয়; বরং রাশিয়ার স্বাধীন সাংবাদিক কমিউনিটির জন্যও খুবই গুরুত্বপূর্ণ

নোবেল কমিটি জানায়, স্বাধীন, এবং সত্য-ভিত্তিক সাংবাদিকতা ক্ষমতার অপব্যবহার, মিথ্যা এবং যুদ্ধের প্রচার থেকে রক্ষা করার কাজ করে। কমিটির তরফে আরও বলা হয়েছে যে, গণতন্ত্র এবং যুদ্ধের বিরুদ্ধে সুরক্ষার জন্য মত প্রকাশের স্বাধীনতা এবং তথ্যের স্বাধীনতা গুরুত্বপূর্ণ পূর্বশর্ত।

বরাবরের মতই চিকিৎসা বিভাগের পুরস্কার ঘোষণার মধ্য দিয়ে গত সোমবার চলতি বছরের নোবেল মৌসুম শুরু হয়। পরের তিন দিনে ঘোষণা করা হয় পদার্থবিদ্যা, রসায়ন আর সাহিত্যের নোবেল।

১১ অক্টোবর অর্থনীতিতে এবারের নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে।