জীবনতলায় স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার মাঝে কীটনাশক খেয়ে আত্মঘাতী স্বামী

    জীবনতলায় স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার মাঝে কীটনাশক খেয়ে আত্মঘাতী স্বামী

    সেলিম হাসান, বঙ্গ রিপোর্ট, জীবনতলাঃ সাংসারিক বিষয় নিয়ে ঝামেলার জেরে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া চরমে পৌঁছালে তারই মাঝে‌ কীটনাশক খেয়ে আত্মঘাতী হন স্বামী। মৃত যুবকের নাম দুরন্ত সরদার(৩৮)। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার জীবনতলা থানার কালিকাতলার হরিণদা গ্রামে।

    স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, ঐ যুবক ঘটনার দিন স্ত্রীর সাথে সাংসারিক বিষয়ে ‌ঝামেলা করে কীটনাশক খায়।পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বিষয়টি জানতে পেরে, আশঙ্কাজনক অবস্থায় তড়িঘড়ি ঐ যুবক কে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ক্যানিং মহকুমা হাপাতালে নিয়ে যায়।

    আশাঙ্কাজনক অবস্থায় ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে বেশ কয়েক ঘন্টা যমে-মানুষে টানাটানির পর চিকিৎসকদের সমস্ত চেষ্টা বিফলে দিয়ে ঐ যুবক মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। ক্যানিং থানার পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্ত পাঠিয়েছে।

    স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, গত প্রায় বছর কুড়ি আগে কালিকাতলার হরিণদা গ্রামের দুরন্ত সরদারের সাথে পার্শ্ববর্তী গ্রাম মুখার্জী পাড়ার কল্পনা সরদারের সাথে বিয়ে হয়। ঐ দম্পতির এক পুত্রসন্তান ও এক কন্যা রয়েছে। গ্রাম বাসিদের দাবী পেশায় রাজমিস্ত্রী দুরন্ত সরদারের ইদানিং কোন কাজ কর্ম না থাকায় মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন, এবং মাঝে মধ্যে স্ত্রীর সাথে এ নিয়ে অশান্তি ও চলছিল।

    ঘটনার দিন সেই অশান্তি চরমে পৌঁছালে সবার অলক্ষ্যে কীটনাশক খেয়ে নেয় ঐ যুবক। ওই সময় ছটফট করতে থাকে, পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা জানতে পেরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে, সেখানেই তার বেশ কিছুক্ষণ চিকিৎসা চলার পর মৃত্যু হয়।

    ঐ যুবকের আচমকা মৃত্যুতে তার পরিবারে ও এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।
    জীবনতলা থানার পুলিশ এ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।