কৃষক হত্যা ভারতীয় গণতন্ত্রের অন্ধকার দিন: লখিমপুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা বিধায়ক নওসাদ সিদ্দিকীর

কৃষক হত্যা ভারতীয় গণতন্ত্রের অন্ধকার দিন: লখিমপুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা বিধায়ক নওসাদ সিদ্দিকীর

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: কৃষকদের উপর আক্রমণ কোন গনতান্ত্রিক দেশের পক্ষে শুধু মর্মান্তিক বা দুঃখ জনক নয়, এটা নিঃসন্দেহে ভারতীয় গনতন্ত্রের এক অন্ধকার দিন মন্তব্য করলেন ভাঙড়ের বিধায়ক নওসাদ সিদ্দিকী। এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি জানান- গতকাল রাষ্ট্রীয় প্ররোচনায় কৃষকদের খুন করা হয়েছে। উত্তরপ্রদেশের লখিমপুরের খেরিতে কৃষকদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের ওপর কেন্দ্রীয় এক প্রতিমন্ত্রীর ছেলে আশিষ মিশ্র পরিকল্পিতভাবে গাড়ি চাপা দিয়ে অন্তত চারজন কৃষককে হত্যা করেছে, পরে আরো পাঁচজন মারা যান।

তিনি আরো বলেন এই ঘৃন্য, নৃশংস হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে আমরা, আমাদের দল আই,এস,এফ তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে। আজ বিভিন্ন নেতা-নেত্রী কৃষকদের সহমর্মিতা জানাতে যেতে চাইলে যোগী সরকার অলিখিতভাবে পুরো উত্তরপ্রদেশ জুড়ে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে। বিভিন্ন নেতৃত্বদের গ্রেফতার করছে, অবরুদ্ধ করে রাখছে অথচ খুনি প্রতিমন্ত্রীর ছেলে ও অন্যান্য অপরাধীদের এখনো গ্রেফতার করা হলো না।

কৃষকরা তাদের ন্যায্য দাবি কৃষি আইন বাতিল, ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য পাওয়ার দাবিতে আজ প্রায় দশ মাস দিল্লিসহ সারা দেশে আন্দোলন করছে। কেন্দ্রের ফ্যাসিবাদী সরকার যদি মনে করে এভাবে জালিওয়ানাবাগ ঘটিয়ে কৃষকদের ন্যায়সঙ্গত আন্দোলন ভেঙ্গে দেবেন, তবে তারা মুর্খের স্বর্গে বাস করছেন। । আজ নয়, কাল আবার সারাদেশে কৃষক আন্দোলনের দামামা বাজবে। জ্বলে উঠবে বিদ্রোহের অগ্নিশিখা। আইএসএফ সমস্ত স্তরের জনসাধারনকে কৃষকদের পাশে থেকে ফ্যাসিবাদী সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানাচ্ছে।