শারীরিক অসুস্থতার জেরে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি মদন-শোভন: সুব্রত- ফিরহাদ প্রেসিডেন্সিতে

    শারীরিক অসুস্থতার জেরে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি মদন-শোভন: সুব্রত- ফিরহাদ প্রেসিডেন্সিতে

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: রাতে নিজাম প্যালেস থেকে মদন মিত্র, শোভন চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিমকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে। কিন্তু সেখানে অসুস্থতা অনুভব করায় রাতেই মদন মিত্র, শোভন চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে যাওয়া হয় এসএসকেএম-এ। ভর্তি করে নেওয়া হয় মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ।

    রাতে হাইকোর্টে শুনানিতে জেল হেফাজতের নির্দেশ হওয়ার পরে নারদ কাণ্ডে অভিযুক্ত ৪ নেতা মদন মিত্র, শোভন চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিমকে সিবিআই-এর দফতর নিজাম প্যালেস থেকে নিয়ে যাওয়া হয় প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে। সেখানে একদিকে যেমন চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়, কাঁদতে দেখা যায় ফিরহাদ হাকিমকেও। বৈশাখী অভিযোগ করেন একজন আততায়ীকে যেভাবে বাড়ি থেকে তুলে আনা হয়, সেই ভাবে শোভন চট্টোপাধ্যায়কে তুলে আনা হয়েছে।

    প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে অসুস্থতা বোধ করায় ভোর চারটে নাগাদ এসএসকেএম-এ নিয়ে যাওয়া হয় মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। দুজনকেই অক্সিজেন সোপোর্টে রাখা হয়েছে। মদন মিত্র রয়েছেন উডবার্ন ওয়ার্ডের ১০৩ নম্বর কেবিনে। অন্যদিকে শোভন চট্টোপাধ্যায়কে রাখা হয়েছে ১০৬ নম্বর কেবিনে। সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও, কিছু পরীক্ষার পরে তাঁকে ফিরিয়ে আনা হয় প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে।

    প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারের উত্তম কুমার স্পেশাল সেলে রাখা হয়েছে রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং ফিরহাদ হাকিমকে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, রাতে ঘুম হয়নি সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং ফিরহাদ হাকিমের। রাতে প্রয়োজনীয় ওষুধ খেলেও, খাবার খেতে পারেননি। তাঁরা মর্নিং ওয়াক করেছেন। এদিন তাঁদের শারীরিক পরীক্ষা করা হতে পারে। প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারের বাইরে কড়া নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করা হয়েছে।