‘হিন্দু ধর্ম খাতরে মে’ – এই আশঙ্কা পুরোপুরি কাল্পনিক: আরটিআই এর জবাবে জানাল খোদ অমিত শাহের স্বরাষ্ট্র দফতর

‘হিন্দু ধর্ম খাতরে মে’ – এই আশঙ্কা পুরোপুরি কাল্পনিক: আরটিআই এর জবাবে জানাল খোদ অমিত শাহের স্বরাষ্ট্র দফতর

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: হিন্দু ধর্মের উপর ‘হুমকি’ সংক্রান্ত যাবতীয় দাবি নস্যাৎ করে দিল বিজেপি(BJP) নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার৷ অমিত শাহ নেতৃত্বাধীন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক(MHA) জানিয়েছে, হিন্দু ধর্মের উপর ‘হুমকি-আক্রমণ’-র আশঙ্কাগুলি পুরোপুরি ‘অনুমানমূলক’ বা ‘কাল্পনিক’৷ নাগপুরের সমাজকর্মী মণীশ জাবালপুরের আরটিআই(RTI)-য়ের উত্তরের এমনটাই জানিয়েছে অমিত শাহের দফতর৷

গত ৩১ অগস্ট মণীশ জাবালপুরে হিন্দু ধর্মের কাছে হুমকি বা আক্রমণ যে কোনও সময়ে নেমে আসতে পারে এ সংক্রান্ত কোনও তথ্য ‘প্রমাণ’ আছে কিনা তা জানতে চেয়ে আরটিআই করে ছিলেন৷ তার এক মাস পরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সিপিআইও(আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা) ভি এস রানা জানিয়েছেন, তাঁদের কাছে কোনও প্রকার তথ্য প্রমাণ নেই৷ যার ভিত্তিতে বলা যেতে পারে, হিন্দুরা ধর্ম বা হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা বিপদের সম্মুখীন৷

আরটিআই আইন অনুযায়ী উত্তরে আরও বলা হয়েছে, একমাত্র জন তথ্য বিষয়ক অফিসারই এ বিষয়ে তথ্য দিতে পারবে, যদি তাঁদের কাছে কোনও তথ্য থেকে থাকে৷ যাইহোক, কেন্দ্রের কাছে কোনও তথ্য না থাকায় রানা যুক্তি দিয়েছেন, জাবালপুরের প্রশ্নের জবাব দেওয়া সম্ভব নয়৷ তাই তাঁর আবেদন বাতিল করা হয়েছে৷

মণীশ জাবালপুরে বলেন, “এই প্রথমবার স্বারাষ্ট্র মন্ত্রকের একজন প্রধান কর্মী বলেছেন ‘হিন্দু ধর্মের প্রতি হুমকি’ সম্পর্কিত বিষয়ে ‘জল্পনা-কল্পনা’কে সমর্থন করার জন্য তাঁদের কোনো রেকর্ড নেই….৷ তা সত্ত্বেও, বিজেপি এবং তার সহযোগীরা রাজনৈতিক ফায়দা লাভের জন্য হিন্দুদের মধ্যে ভয় দেখায়৷ হিন্দু ধর্ম এবং ধর্মীয় পরিচয় মারাত্মক বিপদে রয়েছে বলেও জানানো হয়।

মণীশ জাবালপুরে আরও বলেন, যখন কেন্দ্র আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে আশ্বস্ত করেছে হিন্দু ধর্ম কোন ভাবেই বিপদে নেই, তখন আরএসএস কি তার সাধারণ স্বয়ংসেবকদের মনে প্রতিদিনের প্রার্থনার মাধ্যমে এই তথ্য ঢুকিয়ে দিতে পারে৷