প্রার্থী ঘোষণার ৫ দিন পরও বেপাত্তা তৃণমূল প্রার্থী: ব্যাপক চাপে শাসকদল

    প্রার্থী ঘোষণার ৫ দিন পরও বেপাত্তা তৃণমূল প্রার্থী: ব্যাপক চাপে শাসকদল

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: গত শুক্রবারই আসন্ন নির্বাচনের জন্য তৃণমূলের পুর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এরই মধ্যে ঘটেছে বিপত্তি। প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার প্রায় ৫ দিন পরও কোনও পাত্তা নেই কানাইয়ালাল আগরওয়ালের। ওঁর নামে চারিদিকে দেওয়াল লিখন শুরু হলেও, তাঁর কোনও হদিশ মিলছে না। এই কারণে তাঁকে নিয়ে নানা মহলে প্রশ্নও উঠেছে।

    জেলায় আরএসএস ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত এই কানাইলাল গত উনিশের লোকসভা নির্বাচনে রায়গঞ্জে তৃণমূলের প্রার্থী ছিল। প্রচারে গিয়ে মহঃ সেলিমকে হারাতে নিজের দলের লোকদেরও বিজেপি প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার কথা বললে সেই ভিডিও ভাইরাল হয় সোস্যাল মিডিয়ায়।

    উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ থেকে এবারের বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন কানাইয়ালাল আগরওয়াল। তাঁকে প্রার্থী করা নিয়ে তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে মতবিরোধ দেখা যায়। তৃণমূলের একাংশ চেয়েছিল যে এই এলাকা থেকে কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হবেন রায়গঞ্জ পৌরসভার চেয়ারম্যান অরিন্দম সরকার। কিন্তু তৃণমূল দলনেত্রী কানাইয়ালাল আগরওয়ালকে প্রার্থী করেন।

    তাঁকে প্রার্থী ঘোষণা করার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে প্রতিবাদও করেন রায়গঞ্জ এলাকার তৃণমূল সমর্থকরা। কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। প্রার্থী তালিকায় কোনও পরিবর্তন আসেনি। এই কারণে কানাইয়ালাল আগরওয়ালের নামে দেওয়াল লিখন শুরু হয়। কিন্তু এরপরেও কোনও খোঁজ নেই তাঁর।

    জানা গিয়েছে, গত শনিবার কানাইয়ালাল আগরওয়াল রায়গঞ্জ ব্লকের বিন্দোল এলাকায় দলীয় কর্মীদের সঙ্গে একটি সভা করেন। কিন্তু সেই এলাকা তাঁর কেন্দ্রের মধ্যে পড়ে না। তাই স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্নও উঠেছে যে, নিজের কেন্দ্র ছেড়ে তিনি অন্য জায়গায় সভা কেন করতে গেলেন? আর সভা করলেনই যখন, তাহলে রায়গঞ্জে নিজের এলাকায় কেন যাননি তিনি। এই নিয়ে শুরু হয়েছে বিস্তর জল্পনা।