মোদির এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রি দেশদ্রোহিতার সমান, প্রয়োজনে আদালতে যাব: বিস্ফোরক বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম

মোদির এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রি দেশদ্রোহিতার সমান, প্রয়োজনে আদালতে যাব: বিস্ফোরক বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: এয়ার ইন্ডিয়ার ১০০ শতাংশ শেয়ার বিক্রির সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপিরই রাজ্যসভার সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। এয়ার ইন্ডিয়ার শেয়ার বিক্রির পদক্ষেপকে তিনি ‘দেশবিরোধী’ বলে বর্ণনা করেছেন।

সোমবার কেন্দ্রের তরফে ঘোষণা করা হয়, আগামী ১৭ মার্চের মধ্যে আগ্রহী সংস্থা বা মালিক পক্ষকে আবেদন করতে হবে। পাশাপাশি যারা এয়ার ইন্ডিয়া কিনবে, সংস্থার ঋণভার ও দায় তাদেরই নিতে হবে বলেও শর্ত আরোপ করেছে কেন্দ্র। এই প্রেক্ষিতে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন সুব্রহ্মণ্যম স্বামী।

সোমবারই এক ট্যুইটে তিনি লেখেন, আজ থেকে এয়ার ইন্ডিয়ার বিলগ্নিকরণের প্রক্রিয়া শুরু হল। কিন্তু এই ‘ডিল’ একেবারেই দেশবিরোধী এবং দেশের মূল্যবান সম্পত্তির বিক্রি ঠেকাতে প্রয়োজনে আদালতেও যাব।

সুব্রহ্মণ্যম স্বামী মোদী সরকারের একাধিক নীতির সমর্থক হলেও কিছু ক্ষেত্রে কেন্দ্রের সম্পূর্ণ উল্টো সুরে কথা বলেন। মোদী সরকারের এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে কার্যত বিরোধীদের সুরে সুর মিলিয়ে বিলগ্নীকরণের প্রতিবাদ করলেন তিনি।
সোমবার এয়ার ইন্ডিয়ার শেয়ার বিক্রির পরিকল্পনা সরকারিভাবে প্রকাশিত হওয়ার তীব্র বিরোধিতা করেছেন মুখমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি, প্রবীণ কংগ্রেস নেতা ও আইনজীবী কপিল সিব্বল। ওই দিনই নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়াম থেকে মমতা ঘোষণা করেছেন, এয়ার ইন্ডিয়া সহ একাধিক রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার বিলগ্নিকরণের প্রতিবাদে আন্দোলনে নামছেন তাঁরা।

কপিল সিব্বলের কটাক্ষ, কেন্দ্রের এই পদক্ষেপেই স্পষ্ট যে মোদী সরকারের কোষাগার শূন্য। দেশের অর্থনীতি তলানিতে ঠেকেছে, বৃদ্ধির হার ৫ শতাংশের নীচে চলে গিয়েছে। তাই মূল্যবান সম্পত্তি বিক্রি করে কেন্দ্রীয় সরকার নিজেদের অকর্মণ্যতা ঢাকতে চাইছে। একইরকম মন্তব্য করেন আর এক কংগ্রেস নেতা সন্দীপ দীক্ষিত। তিনি বলেন, এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রির পদক্ষেপ প্রমাণ করল, মোদী সরকারের আমলে দেশ দেউলিয়ার পথে হাঁটছে। পাশাপাশি এতে দুর্নীতিরও গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে বলে জানান তিনি।