মুকুল- শুভেন্দু- অধীর-সুজন-বিমানদের কোটি কোটি টাকা দেওয়া হয়েছিল: চিঠি লিখলেন সারদা কর্তা সুদীপ্ত

মুকুল- শুভেন্দু- অধীর-সুজন-বিমানদের কোটি কোটি টাকা দেওয়া হয়েছিল: চিঠি লিখলেন সারদা কর্তা সুদীপ্ত

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: একুশের ভোটের আগে ‘‌পত্রবোমা’ বাংলায়। জেল থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে চিঠি লিখলেন সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন। চিটফান্ডের ব্যবসার চালাতে কাকে কত টাকা দিয়েছেন, চিঠিতে বিশদে লিখেছেন তিনি, সূত্রের খবর। এই মুহূর্তে বঙ্গ রাজনীতির আলোকবৃত্তে থাকা শুভেন্দু অধিকারী থেকে শুরু করে বিজেপি নেতা মুকুল রায়, বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসু, বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী এবং প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরির নামও রয়েছে চিঠিতে। ‌

কারা দপ্তর সূত্রে খবর, গত ১ ডিসেম্বর চিঠিটি লেখেন সুদীপ্ত সেন। কারা দপ্তর থেকে তা পাঠানো হয়েছিল এডিজির দপ্তরে। সেখান থেকে সিএমও ও পিএমওতে পাঠানো হয়েছে। জানা গেছে, দেড় পাতার চিঠিতে পাঁচ জনের নাম উল্লেখ করেছেন তিনি। পত্রে তিনি জানিয়েছন, শুভেন্দু অধিকারীকে ৬ কোটি, সুজন চক্রবর্তীকে ৯ কোটি এবং বিমান বসুকে ২ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। অধীর চৌধুরি নাকি ৬ কোটি টাকা নিয়েছেন!‌ তিনি নিজেও নাকি ৬ কোটি নিয়েছিলেন।

বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়কে কত টাকা দিয়েছেন, তা মনে করতে না পারলেও, অঙ্কটা যে বেশ মোটা, জানিয়েছেন সুদীপ্ত সেন, দাবি সূত্রের। চিঠিটি সুদীপ্ত সেনই লিখেছেন কি না, তা এখনও পরিষ্কার নয়। সূত্রের খবর, হাতের লেখা পরীক্ষা করবে সিবিআই। যদিও এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বা মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকে কোনও বিবৃতিই আসেনি এখনও।

সম্প্রতি সারদাকাণ্ডে অভিযুক্ত দেবযানী মুখার্জির জামিনের আর্জির পরিপ্রেক্ষিতে সিবিআই জানিয়েছিল, সারদা মামলা সংক্রান্ত একটি নতুন ভয়েস রেকর্ড হাতে এসেছে। ওই অডিও–ক্লিপে রয়েছে একাধিক ব্যক্তির কণ্ঠস্বর। তা নিয়ে সুদীপ্ত সেন ও দেবযানীকে ফের মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চায় তারা। আর তারপরই এই পত্রবোমা!‌