ধারাবাহিক সমাজ সেবামূলক কাজের জন্য সান্মানিক ডক্টরেট পেলেন মুর্শিদাবাদের মোস্তাক রশিদ

ধারাবাহিক সমাজ সেবামূলক কাজের জন্য সান্মানিক ডক্টরেট পেলেন মুর্শিদাবাদের মোস্তাক রশিদ

 

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট :তাঁর নেশা সমাজসেবা মূলক কাজ করে মানুষের পাশে থাকা। গত কয়েক বছর ধরে নীরবে দুস্থ– অনাথ– সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের পাশে থেকেছেন। আর তাই কাজের জন্য সাম্মানিক ডক্টরেট ডিগ্রি পেলেন মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুরের মোস্তাক রশিদ। দিল্লির থিওফ্যানি বিশ্ববিদ্যালয়-এর পক্ষ থেকে গত ৯ জানুয়ারি সাম্মানিক ডক্টর অফ ফিলোযপি ডিগ্রি দেওয়া হয়। জনাব মোস্তাক রশিদকে জেলায় সকলে সমাজসেবী মোহন লাল নামেই চেনেন।

 

 

মঙ্গলবার কলকাতায় তিনি জানান– সংখ্যালঘু অধ্যুষিত মুর্শিদাবাদ জেলায় পিছিয়ে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তিনি সব সময় কাজ করেন। তার জন্য এমন স্বীকৃতি পাবেন কোনদিন ভাবেননি। গত ৯ জানুয়ারি দিল্লির অদূরে গাজিয়াবাদে এই ৮০ জনকে এই সাম্মানিক ডক্টরেট ডিগ্রি দেওয়া হয়। পেশায় ব্যবসায়ী মোস্তাক রশিদ জানান– সমাজের জন্য কতটা কাজ করতে পারি জানি না– তবে এই উপাধি আগামী দিনে কাজ করার জন্য আরও উৎসাহিত করবে। থিওফ্যানি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান।

 

গত বছর করোনা পরিস্থিতিতে বহরমপুর– কান্দি– কুলফি– ডোমকল– জলঙ্গী এলাকায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন– খাদ্য সামগ্রী থেকে শুরু করে বস্ত্র– ওষুধ তুলে দিয়েছেন দুস্থদের হাতে। করোনা পরিস্থিতির আগে থেকে কাজ করছেন। বিবাহযোগ্য মহিলার বিয়েতে অনুদান– দুস্থদের পড়াশুনা প্রভৃতি কাজে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। এই পুরস্কার আগামী দিনে আরও কাজ করতে উৎসাহ যোগাবে বলে তিনি জানান।