১৪ নভেম্বর-শিশু দিবস: দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জহরলাল নেহেরুর জন্মদিনে শ্রদ্ধা নিবেদন

১৪ নভেম্বর-শিশু দিবস: দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জহরলাল নেহেরুর জন্মদিনে শ্রদ্ধা নিবেদন

বঙ্গ রিপোর্ট ডিজিটাল ডেস্ক:  পণ্ডিত জওহরলাল নেহরু জন্ম ১৪ই নভেম্বর, ১৮৮৯। মৃত্যু ২৭শে মে, ১৯৬৪। জাতীয় কংগ্রেসের অন্যতম নেতা, ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম প্রধান নেতা এবং স্বাধীন ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী। তাঁর জন্মদিনটি জাতীয় শিশু দিবস হিসাবে পালন করা হয়।

দূরদৃষ্টিসম্পন্ন, আদর্শবাদী, পণ্ডিত এবং কূটনীতিবিদ নেহরু ছিলেন এক জন আন্তর্জাতিক ভাবে খ্যাতিসম্পন্ন ব্যক্তিত্ব। লেখক হিসেবেও নেহরু ছিলেন বিশিষ্ট। ইংরাজিতে লেখা তাঁর তিনটি বিখ্যাত বই- ‘একটি আত্মজীবনী’ (অ্যান অটোবায়োগ্রাফি),’বিশ্ব ইতিহাসের কিছু চিত্র’ (গ্লিম্পসেস অফ ওয়ার্ল্ড হিস্টরি), এবং ‘ভারত আবিষ্কার’ (দ্য ডিসকভারি অফ ইন্ডিয়া) চিরায়ত সাহিত্যের মর্যাদা লাভ করেছে।

তাঁর পিতা মতিলাল নেহরু এক জন ধনী ব্রিটিশ ভারতের নামজাদা ব্যারিস্টার ও রাজনীতিবিদ ছিলেন। মহাত্মা গান্ধীর তত্ত্বাবধানে নেহরু ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের অন্যতম প্রধান নেতা হিসেবে আবির্ভূত হন। ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীন ভারতের পতাকা উত্তোলন করেন।

পরবর্তীকালে তাঁর মেয়ে ইন্দিরা গান্ধী ও দৌহিত্র রাজীব গান্ধী ভারতের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। তাঁর শাসন কালে এ ভারত-পাকিস্তান ও ভারত-চিন যুদ্ধ সংঘটিত হয়। ভারত-পাকিস্তানের শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনের উদ্দেশ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নেহরু ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী লিয়াকত আলি খান নেহরু-লিয়াকত চুক্তি করেন। ২৭ মে, ১৯৬৪ পর্যন্ত তিনি ভারতে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।

ব্যক্তিজীবনে রুচিবান পুরুষ হিসেবে পরিচিত ছিলেন জওহরলাল নেহরু। তাঁর পরিধেয় বহুল ব্যবহৃত প্রিয় কোটটি নেহরু কোট নামে পরিচিত। নেহরু ফ্যাশনের সব চেয়ে চমকপ্রদ অধ্যায়টি হচ্ছে যে-কোনও রাজনৈতিক বা সামাজিক আচার-অনুষ্ঠানে স্বতন্ত্রধর্মী এই কোটটি পরতেন তিনি। জওহরলাল নেহরু ছোটদের সঙ্গে সময় কাটাতে ভালোবাসতেন। ছোটদের মধ্যে তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিলেন। চাচা নেহরু নামে তাঁর খ্যাতি ছিল। তাঁর চরিত্রের এই বিশেষ দিকটিকে মনে রেখে তাঁর জন্মদিনটি দেশজুড়ে শিশু দিবস হিসেবে পালিত হয়।