ত্রাণ বিলি করতে গিয়ে ভবানীপুরে চড় খেলেন রুদ্রনীল ঘোষ

    • ত্রাণ বিলি করতে গিয়ে ভবানীপুরে চড় খেলেন রুদ্রনীল ঘোষ

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: কোভিড পরিস্থিতি এবং ইয়াস পরবর্তী পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে থাকতে ত্রাণ দিতে গিয়েছিলেন রুদ্রনীল ঘোষ। কিন্তু ত্রাণ দিতে গিয়ে তাঁকে খেতে হল চড়। তৃণমূল নেতাদের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন বলেই জানালেন অভিনেতা তথা বিজেপি নেতা রুদ্রনীল ঘোষ। এদিন ভবানীপুরের ৭১ নম্বর ওয়ার্ডে কিছু অসহায় কর্মহীন মানুষের পাশে ত্রাণ এবং খাদ্য সামগ্রী নিয়ে রুদ্রনীল ঘোষ ও তাঁর সহযোগীরা যান। কিন্তু সেখানে যেতেই ঘটে গেল বিপত্তি।

    ৭১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল সভাপতি বাবলু সিংয়ের নেতৃত্বে তৃণমূল কর্মীরা হামলা চালায় আমাদের উপর, আমায় চড় মারে, বলে জানালেন রুদ্রনীল ঘোষ। রুদ্রনীল ঘোষের কথায়, নির্বাচনের পর পশ্চিমবঙ্গে সর্বত্র বিজেপির লোকেদের উপর হামলা চলছে। মারধর করা হচ্ছে, ত্রাণ বিলিতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি মুখে বলছেন সবাই মিলে মানুষের পাশে দাঁড়ান। কিন্তু, বাস্তবে তৃণমূলের বিরোধী কেউ মানুষের পাশে দাঁড়াতে গেলেই শুরু হয়ে যাচ্ছে মারধর,অত্যাচার। তৃণমূলের ৭১ নম্বর ওয়ার্ডের ব্লক প্রেসিডেন্ট বাবলু সিং প্রকাশ্যে এসব করল কার সাহসে? আমি এর উত্তর চাই, বিচার চাই। কালীঘাট থানায় অভিযোগ জানিয়েছি। দেখা যাক ব্যবস্থা নেওয়া হয় কিনা।

     

    প্রসঙ্গত, ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী ছিলেন রুদ্রনীল ঘোষ। ভোটে তিনি তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতা শোভনদেব চ্যাটার্জির কাছে হেরে যান। ভোটের প্রচারের সময়ও রুদ্রনীল ঘোষের উপর তৃণমূল হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেছিলেন রুদ্রনীল ঘোষ।