নিজের শহর দিল্লিতে গিয়ে পিতা মাতার কবর জিয়ারত করলেন শাহরুখ খান

    নিজের শহর দিল্লিতে গিয়ে পিতা মাতার কবর জিয়ারত করলেন শাহরুখ খান

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: শাহরুখ খান বেড়ে উঠেছেন দিল্লিতে। এটা তার জন্মের শহর। রাজধানী দিল্লিতে গিয়ে পিতা মাতার কবর জিয়ারত করলেন অভিনেতা শাহরুখ খান।শাহরুখের পিতা তাজ মহম্মদ খান ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ১৯৮১ মারা যান, শাহরুখের বয়স যখন ১৫ বছর। দীর্ঘ অসুস্থতার পর ১৯৯১ সালে কিং খানের মাও এই পৃথিবী ছেড়ে চলে যান।

    মুম্বাইয়ে ‘পাঠান’-এর প্রথম ভাগের কাজ শেষ করে সম্প্রতি ছবিটির শুটিংয়ের জন্য দিল্লিতে গিয়েছেন কিং খান। নিজের হোমটাউনে গেলে একটি কাজ করতে কখনও ভোলেন না বলিউডের এই সুপারস্টার। আর সেটি হলো- তার বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত করা।
    ‘পাঠান’-এর শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকার পরও তার মধ্যে থেকে রোববার (০৭ মার্চ) ফাঁকা সময় বের করে বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত করতে গিয়েছিলেন শাহরুখ খান। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ পেতেই তার রীতিমতো ভাইরাল। এদিন সাদা শার্ট, কালো প্যান্টে দেখা গেছে শাহরুখকে। রীতি মেনে রুমাল দিয়ে মাথা ঢেকেছিলেন তিনি।

    শাহরুখ খান ১৯৬৫ সালের ২ নভেম্বর নতুন দিল্লিতে জন্মগ্রহণ করেন।পিতা মীর তাজ মোহাম্মদ খান ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের কর্মী ছিলেন। তিনি খান আবদুল গাফফার খানের অনুসারী ছিলেনএবং ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসর সাথে যুক্ত ছিলেন। শাহরুখ খানের মাতা লতিফ ফাতিমা ছিলেন উর্ধ্বতন সরকারী প্রকৌশলী ইফতিখার আহমেদের কন্যা।

    মা-বাবার চলে যাওয়া সে সময় মেনে নিতে পারেননি তিনি। জীবনে তার যে শূন্যতা তৈরি হয়েছিল, অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি তা পূরণ করতে চেয়েছিলেন। তখনই বড় পর্দায় অভিনয়ের সুযোগ আসে তার। তাই অভিনয়কে শাহরুখ নিছক অভিনয় হিসেবে দেখেন না। এই পেশা তার অনুভূতি প্রকাশ করার মাধ্যমও বটে।