গোলামরাই এতদিন ইমামের ছদ্মবেশে মিল্লাতকে ধার্মিকভাবে পিছিয়ে রেখেছে

গোলামরাই এতদিন ইমামের ছদ্মবেশে মিল্লাতকে ধার্মিকভাবে পিছিয়ে রেখেছে

শাহনেওয়াজ আলি রায়হান

প্রথম পরিচয় গোলাম, তারপরে ইমাম। গোলামী ইমামতিকে ছাড়িয়ে যাবে এটাই স্বাভাবিক। এই গোলামরাই এতদিন ইমামের ছদ্মবেশে মিল্লাতকে ধার্মিকভাবে পিছিয়ে রেখেছে । না নিজেরা দ্বীন বুঝেছে, না মুসল্লিদের বুঝতে দিয়েছে। মসলক নিয়ে হাতাহাতি করেই চাকরি বাঁচিয়েছে। এদের কাছ থেকে তাকলীদ ছেড়ে রাজনৈতিক কোনও ইজতেহাদ আশা করা বাতুলতা। এরা সেই বনী ইসরাইলদের থেকেও অধম যারা মুসা (আ.)-কে বলেছিল- ‘ তুমি ও তোমার রব গিয়ে যুদ্ধ কর গে।’ এরা হল ফ্রিল্যান্স করা গোলাম — নমরুদ, সাদ্দাদ, হামান, আবু জেহেল সবার গোলামী করবে, মানে যখন যে গদিতে আসীন থাকে তার গোলাম । সরকারি গোলাম । গোলামীর পেছনে যুক্তি দেবে- আমরা তো ফেরাউনকে আটকাতে চাই, আর ফিরাউন গদিতে এলে এরাই তাদের বলবে আমরা তো আপনাদের দিকেই আছি ! এদের মনের ভেতর যে এত বছরের হৃষ্টপুষ্ট বাকারা চরে বেড়াচ্ছে, যে খড় দেখলেই এর ওর জমিতে আল পার করে ঢুকে পড়ে– সেটার কুরবানী করবে কোন ইমাম সংগঠন ? যখন মাইকে আজান বন্ধ করার বিল পাস হবে বিধানসভায়, তখন এদের মাবুদদের বিরোধী বেঞ্চে খুঁজেও পাওয়া যাবেনা ভোটাভুটির সময়– এই সুসংবাদ কি কোনও বার্তাবাহক এই তৈলমর্দনকারীদের পৌঁছে দিয়েছে ?