সুভাষচন্দ্রের ছায়াসঙ্গী আবিদ হাসান সফরানি পাচ্ছেন মরণোত্তর “নেতাজি সন্মান”

সুভাষচন্দ্রের ছায়াসঙ্গী আবিদ হাসান সফরানি পাচ্ছেন মরণোত্তর “নেতাজি সন্মান”

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: নেতাজির ১২৫ তম জন্মবার্ষিকীতে এবার মরণোত্তর নেতাজি সম্মান দেওয়া হচ্ছে তাঁর দীর্ঘদিনের ছায়াসঙ্গী আবিদ হাসান সফরানিকে । মঙ্গলবার এ কথা জানান নেতাজি রিসার্চ ব্যুরোর অধিকর্তা সুগত বসু ।

তিনি বলেন,’আমাদের মনে হয়েছে, আবিদ হাসানকে সম্মান জানানোর এটাই আদর্শ সময়। নেতাজি যে সাম্যের কথা বলতেন, সেটা তুলে ধরতে এই সিদ্ধান্ত। সেই ভাবনা থেকে আবিদ হাসানের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করি আমরা। ২৩ জানুয়ারি তাঁর আত্মীয়া ইসমত মেহেদি হায়দরাবাদ থেকে এই সম্মান গ্রহণ করবেন।’

কে এই আবিদ হাসান? হায়দরাবাদের যুবক আবিদ হাসান সফরানি , জার্মানিতে ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়ছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হতে বন্ধ হয় ঘরে ফেরার পথ। ১৯৪১ সালে সুভাষচন্দ্র বসু জার্মানিতে পৌঁছলে ধীরে ধীরে তাঁর সঙ্গে সখ্যতা গড়ে ওঠে আবিদের। নেতাজি ইউরোপ থেকে ডুবোজাহাজে এশিয়ার উদ্দেশে যাত্রায় লেগেছিল ৯০ দিন। যাত্রাপথে একমাত্র ভারতীয় সঙ্গী ছিলেন আবিদ হাসান। এর পাশাপাশি, সিঙ্গাপুর এবং রেঙ্গুনেও নেতাজির ঘনিষ্ঠ সঙ্গী ছিলেন আবিদ। ইম্ফলে স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন তিনি। সুগত বসু মনে করিয়ে দেন,’উনি নেতাজির শেষদিন পর্যন্ত সঙ্গে ছিলেন। ভারত স্বাধীন হওয়ার পর ফরেন সার্ভিসে যোগ দেন। একাধিক দেশে ভারতের হয়ে  কূটনীতিকের দায়িত্ব সামলেছেন।’

https://www.bangareport.com/abid-hasan-netaji-subhas-chandra-boses-companion-was-the-creator-of-the-slogan-joy-hind/