তমলুক আদালত থেকে পুলিশকে বোকা বানিয়ে পালিয়ে গেল ৫ আসামী

    তমলুক আদালত থেকে পুলিশকে বোকা বানিয়ে পালিয়ে গেল ৫ আসামী

    সুভাষ মিশ্র, বঙ্গ রিপোর্ট, পূর্ব মেদিনীপুর  কাঁথি আদালতের পর এবার তমলুক জেলা আদালত থেকে পুলিশকে বোঁকা বানিয়ে চম্পট দিল পাঁচ আসামী। এই ঘটনার পর আদালত সহ গোটা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে আদালত চওরে ছুটে যায় পুলিশের উচ্চ পদস্থ আধিকারীরা। তল্লাশি চালিয়ে দুই অভিযুক্তকে হাতে নাতে ধরে ফেলে পুলিশ।

    সূত্রের খবর বুধবার দুপুরের তমলুক জেলা আদালতে আত্মসমওর্ণ করে পাঁচজন অভিযুক্ত। আদালতের বিচারক পাঁচজনকে জেল হাজতের নির্দেশ দেন। এরপর পুলিশকে বোঁকা বাঁনিয়ে চম্পট দেয় পাঁচজন। প্রসঙ্গত তমলুক থানার গোবরা গ্রামের ২০১৬ সালের একটি খুনের চেষ্ঠার ঘটনার সাতজনের বিরুদ্ধের গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি হয়েছিল। সেই মুলে পাঁচজন আদালতে আত্মসমপর্ণ করে ছিল।

    পুলিশ একটি মামলার দায়ের করেছে। বাকীদের ধরতে জোরদার তল্লাশি শুরু করেছে। গত এক বছর আগে কাঁথি আদালত থেকে দাগী চারজন আসামী পুলিশ উপর গুলি ও বোমাবাজি করে পালিয়ে যায়। কর্ন বেরা, সেক মুন্না, সুরজিৎ গুড়িয়া ও রতিকান্ত মণ্ডল। এরপর পুলিশ প্রথমে রতিকাণ্ড মণ্ডলকে গ্রেফতার করে। বন্ধুক গুলি লড়াই পর দাগী আসামী কর্ন বেরাকে গ্রেফতার করে। ঘটনার সেক মুন্না ও সুরিজিৎ গুড়িয়া পালিয়ে যায়।