হাসপাতালের থেকে দেশে মন্দিরের প্রয়োজন বেশি: আবার বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপ ঘোষের

    হাসপাতালের থেকে দেশে মন্দিরের প্রয়োজন বেশি: আবার বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপ ঘোষের

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: করোনা আতঙ্কে ত্রস্ত গোটা বিশ্ব। বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর অভিযোগও তুলছেন অনেকেই। এই পরিস্থিতিতে রাম মন্দিরের ভূমিপুজো কী সত্যি যুক্তিযুক্ত, সেই প্রশ্ন নিয়ে চলছে জোর তরজা। তবে সেই আলোচনার মাঝেই মুখ খুলে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

    শনিবার দিলীপ ঘোষ বলেন, “ভারতের ঐতিহ্য, গর্ব রাম মন্দির। তাই দেশে হাসপাতালের সংস্কৃতির তুলনায় মন্দিরের সংস্কৃতি অনেক বেশি প্রয়োজনীয়। অযোধ্যার কোনও মানুষ তো রাম মন্দিরের ভূমিপুজো নিয়ে একবারও প্রশ্ন করেননি। বরং গত পাঁচ শতাব্দী ধরে রাম মন্দিরের জন্য বহু মানুষ তাঁদের প্রাণ বলি দিয়েছেন।” নাম না করে রাজ্য সরকারকে খোঁচা দিয়ে তাঁর দাবি, “যাঁরা রাম মন্দিরের তুলনায় হাসপাতাল বেশি প্রয়োজন বলে দাবি করছেন তাঁরা সঠিকভাবে মানুষকে চিকিৎসা পরিষেবাই দিতে পারেন না।

    হাসপাতালে পর্যাপ্ত বেড নেই। তাঁরা মানুষকে ভুল পথে চালিত করার চেষ্টা করছেন। উত্তরপ্রদেশে পর্যাপ্ত হাসপাতাল রয়েছে। করোনা রোগীর তুলনায় সরকারি হাসপাতালের সংখ্যা যথেষ্ট বেশি। সেখানে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। যাঁরা নিজেদের ধর্মের কথা বুক ফুলিয়ে বলতে ভয় পান, তাঁরাই রাম মন্দিরের বিরোধিতা করছেন। যাঁরা গর্ব অনুভব করছেন, তাঁরা রাম মন্দিরের ভূমিপুজোকে সমর্থন করছেন।”

    স্বাধীনতার লড়াইয়ের সঙ্গেও রাম মন্দির ইস্যুর তুলনা করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ । তিনি বলেন, “স্বাধীনতার জন্য লড়াই ১০০ বছরের। তবে রাম মন্দিরের জন্য গত ৫০০ বছর ধরে লড়াই চলেছে। লক্ষাধিক মানুষ লড়াইয়ে শামিল হয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে কয়েক হাজার মানুষ প্রাণও হারিয়েছেন। যাঁদের রাম মন্দিরের জন্য লড়াই সম্পর্কে ধারণা নেই, তাঁদের আন্দোলন সম্পর্কে আরও জানা উচিত।”

    বঙ্গ রাজনীতিতে এখন সবচেয়ে বেশি আলোচিত গেরুয়া শিবিরের দিলীপ ঘোষ। রাম মন্দির ইস্যুতেও এহেন মন্তব্যের মাধ্যমে কার্যত বোমাই ফাটালেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে বিভিন্ন মহলে চলছে জোর আলোচনা।