বাবা মারা যাওয়ার পর থামেনি লড়াই: ইলমা আফরোজ এখন সফল আইপিএস

    বাবা মারা যাওয়ার পর থামেনি লড়াই: ইলমা আফরোজ এখন দেশের সফল আইপিএস

    বঙ্গ রিপোর্ট ডিজিটাল ডেস্ক: ইলমা আফরোজ। উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদ জেলার কুনদারকি গ্রামে নিম্ন মধ্যবিত্ত কৃষক পরিবারে জন্ম। মাত্র ১৪ বছর বয়স, ক্যান্সারের কারণে পিতাকে সে হারালো। সংসারে নেমে এলো গভীর সংকট।কান্ডারির ভূমিকা পালন করলেন তার মা। ইলমা ও তার ভাইকে বড় করতে লাগলেন প্রতিকূলতার মধ্যে। সমাজের তথাকথিত স্রোতের বিপরীতে গিয়ে বিবাহের নাগপাশে মেয়েকে আবদ্ধ না করে তার স্বপ্ন উড়ান কে বাস্তবায়িত করার জন্য নিজের সর্বস্ব বাজি রাখেন।

    নিরাশ করেননি ইলমাও। সমস্ত প্রতিকূলতাকে দূরে ঠেলে ইলমা তার প্রতিভার বিচ্ছুরণ করতে থাকেন। কুনদারকি হাই স্কুল থেকে পাশ করে নিউ দিল্লির সেন্ট স্টিফেন কলেজ থেকে দর্শনশাস্ত্রে স্নাতক হন। হাতছানি এলো অক্সফোর্ড থেকে পড়ার। কিন্তু কে যোগাবে এই খরচ? হঠাৎই স্কলারশিপ জুটে গেল। বাকি জোগাড় এদিক ওদিক থেকে হলো। মা বললেন একদম পড়া শেষ করে দেশে ফিরতে হবে। সামর্থ্য নেই বার বার বাড়ি আনার। শর্ত দিলেন, দেশের হয়েই কাজ করতে হবে।

    সবাই ভাবালো মেয়ে কি আর দেশে ফিরবে? কিন্তু ইলমা অক্সফোর্ড উত্তীর্ণ হওয়ার পর বিদেশের স্বাচ্ছন্দ্যময় জীবনের হাতছানিকে উপেক্ষা করে শিকড়ের টানে ভারতে ফিরে আসেন এবং ইন্ডিয়ান সিভিল সার্ভিসের প্রস্তুতি শুরু করেন। ২০১৭ তে ২১৭ রাঙ্ক করে হিমাচল ক্যাডারের আইপিএস হিসাবে তার স্বপ্নের কর্মযজ্ঞ শুরু করলেন।