পবিত্র কোরআনের প্রথম সার্থক বাংলা অনুবাদক ছিলেন গিরিশচন্দ্র সেন

পবিত্র কোরআনের প্রথম সার্থক বাংলা অনুবাদক ছিলেন গিরিশচন্দ্র সেন

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: মহাগ্রন্থ আল-কোরআনের প্রথম সার্থক বাংলা অনুবাদক গিরিশচন্দ্র সেন ১৮৩৪ সালের এপ্রিল অথবা মে মাসে নরসিংদী সদর উপজেলার পাঁচদোনা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯১০ সালের ১৫ আগস্ট ঢাকায় তাঁর মৃত্যু হয়।

গিরিশচন্দ্র সেন ছিলেন একাধারে সাহিত্যিক, গবেষক ও ভাষাবিদ। ব্রাহ্ম ধর্মপ্রচারক হিসেবে ‘ভাই’ খেতাবে ভূষিত হন তিনি। আবার আরবি ও ফার্সি ভাষায় জ্ঞান অর্জন ও কোরআন-হাদিসের প্রথম অনুবাদক হিসেবে লাভ করেন মৌলভি খেতাব। তিনি প্রায় সব ধর্মগ্রন্থ নিয়ে গবেষণা করেছেন।

মৃত্যুর পর গিরিশচন্দ্রের স্মৃতিবিজড়িত পাঁচদোনার বাড়িটি সংরক্ষণ হয়নি। উল্টো দখলে চলে গিয়েছিল তাঁর ভিটেবাড়ি। নিশ্চিহ্ন হতে চলেছিল তাঁর শেষকৃত্যের স্থানটিও। দেশের দূর-দূরান্ত থেকে লোকজন গিরিশচন্দ্রের বাড়ি দেখার জন্য ছুটে এসে হতাশ হন।

ঐতিহ্য অন্বেষণের নির্বাহী পরিচালক ড. সুফি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মূল অবকাঠামো অক্ষুণ্ণ রেখে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে ভাই গিরিশচন্দ্রের বাড়ির মেরামত ও সংরক্ষণ করা হবে। বাড়িটিতে গিরিশচন্দ্রের জীবন ও গবেষণা নিয়ে জাদুঘর নির্মাণ করা হবে, যাতে গিরিশচন্দ্র সেনের ব্যবহৃত জিনিসপত্র ও লেখা বই স্থান পায়। আগামী তিন মাসের মধ্যে মূল রক্ষণাবেক্ষণ কাজ শেষ হবে।

ভাই গিরিশচন্দ্র সেন পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শাহিনূর মিয়া জানান, বিশ্বে চলমান সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ রুখতে ভাই গিরিশচন্দ্র সেনের অসাম্প্রদায়িক চেতনা তরুণ প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে।