লাদাখে শহিদ কর্নেলের স্ত্রীকে ডেপুটি কালেক্টর করে কথা রাখল কেসিআর সরকার

    লাদাখে শহিদ কর্নেলের স্ত্রীকে ডেপুটি কালেক্টর করে কথা রাখল কেসিআর সরকার

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: কথা রাখলেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনার বর্বরোচিত আক্রমণে শহিদ ভারতীয় সেনার কর্নেল সন্তোষ বাবুর স্ত্রীকে ডেপুটি কালেক্টর পদে নিয়োগ করলেন তিনি। সেই সঙ্গে হায়দরাবাদের অভিজাত এলাকা বানজারা হিলসে একটি প্লট দেওয়া হয়েছে সঙিদ কর্নেলের স্ত্রী সন্তোষী বাবুকে। মুখ্যমন্ত্রীর এই পদক্ষেপে উচ্ছ্বসিত শহিদের পরিবার।

    বুধবারই একটি সরকারি অনুষ্ঠানে নিয়োগপত্র সন্তোষী বাবুর হাতে তুলে দেওয়া হয়। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, সন্তোষী বাবুর একটি চার বছরের ছেলে এবং আট বছরের মেয়ে রয়েছে। তাই তাঁকে হায়দরাবাদেই পোস্টিং দেওয়া হয়েছে।

    মুখ্যসচিব স্মিতা সবরওয়ালকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কাজে যোগ দেওয়া পর্যন্ত সন্তোষী বাবুকে গুরুত্বপূর্ণ কাজের বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়ার। তাছাড়াও সরকারের তরফে শহিদের পরিবারের পাশে সবসময় থাকার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। গত জুন মাসেই শহিদের স্ত্রীকে রাজ্য সরকারের গ্রুপ ১ অফিসার পদে নিয়োগ করেন মুখ্যমন্ত্রী। শহিদের পরিবারকে সেইসময় ৫ কোটি টাকা আর্থিক সাহায্যও করেন মুখ্যমন্ত্রী।

    ১৬ বিহার রেজিমেন্টের কম্যান্ডিং অফিসার কর্নেল সন্তোষ বাবু গত ১৫ জুন রাতে লাদাখের গালওয়ানে চিনা সেনার সঙ্গে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে শহিদ হন। তাঁর সঙ্গে আরও ১৯ জন ভারতীয় জওয়ান সেদিন শহিদ হয়েছিলেন। এই ঘটনার পর গোটা দেশে শোকের ছায়া নামে। কর্নেল বাবুর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে আসেন তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও। তখনই আজীবন শহিদের পরিবারের পাশে থাকার অঙ্গীকার করেন কেসিআর।