প্রয়াত পাকিস্তানের পরমাণু বিজ্ঞানী আব্দুল কাদির খান

প্রয়াত পাকিস্তানের পরমাণু বিজ্ঞানী আব্দুল কাদির খান

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট “পাকিস্তানের পারমাণবিক বোমার জনক” হিসেবে পরিচিত আব্দুল কাদির খান ৮৫ বছর বয়সে মারা গেছেন। রবিবার মৃত্যু হয় তার। কোভিড ১৯ সংক্রমণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি।

এই পরমাণু বিজ্ঞানী পাকিস্তানকে বিশ্বের প্রথম মুসলিম দেশকে পারমাণবিক শক্তিতে রূপান্তরিত করার জন্য জাতীয় বীর হিসেবে প্রশংসা পেয়েছিলেন। কিন্তু পশ্চিমের দেশগুলি, rogue state নাম পরিচিত দেশগুলিতে, পারমাণবিক প্রযুক্তি চোরাচালানের জন্য তাকে দায়ী করে তাকে বিপজ্জনক হিসেবে বর্ণনা করেছিল। সরকারি সংবাদ সংস্থা PTV জানিয়েছে ইসলামাবাদের KRL হাসপাতালে মৃত্য হয় তার।

অগাস্ট মাসে এই হাসপাতালেই ভর্তি হন খান । কিছু সপ্তাহ আগে বাড়ি ফিরলেও আবার শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খানের প্রয়ানে শোক প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের (Pakistan) প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভী । পাকিস্তানে মনে করা হয় তিনি পারমানবিক ক্ষেত্রে পাকিস্তানকে চির প্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের সমতুল্য করে তুলেছেন এবং দেশের প্রতিরক্ষাকে “দুর্ভেদ্য” করেছেন।

কিন্তু ইরান, লিবিয়া এবং উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে অবৈধভাবে পারমাণবিক প্রযুক্তি শেয়ার করার অভিযোগে তিনি আন্তর্জাতিক মহলের নিশানায় ছিলেন। বিদেশে নেটওয়ার্ক চালানোর কথা স্বীকার করার পর খানকে ২০০৪ সালে রাজধানী ইসলামাবাদে গৃহবন্দী করা হয়েছিল। আদালত ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে তার গৃহবন্দী থাকার অবসান ঘটায়। কিন্তু খানের গতিবিধি কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত ছিল।