উন্নাও কান্ডে সারা দেশে মুখ পুড়েছে যোগী সরকারের: অবশেষে ৭ পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড

    উন্নাও কান্ডে সারা দেশে মুখ পুড়েছে যোগী সরকারের: অবশেষে ৭ পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: কথায় আছে ‘চোর পালালে বুদ্ধি বাড়ে’৷ যোগী সরকারের ক্ষেত্রে কতাটি খুবই প্রযোজ্য৷ উন্নাওকাণ্ডে ধর্ষিতার মৃত্যুর পরে দেশজুড়ে প্রবল জনরোষের চাপে পড়ে উন্নাও বিহার থানার আধিকারিক অজয় কুমার ত্রিপাঠি সহ ৬ পুলিশকর্মীকে সাময়িক বরখাস্থ( সাসপেন্ড) করল যোগী প্রশাসন৷ সোমবার এ কথা জানান উত্তরপ্রদেশের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব অবনী অবস্তি৷ তিনি ফোনে উন্নাও এর ধর্ষিতার ৬৫ বছরের বাবকে কথা দেন রাজ্য সরকারি চাকরি পরিবাররে একজন পাবেন৷

    লখনউ ডিভিশনের পুলিশ কর্তা মুকেশ মেশরাম৷ জানান, উন্নাও এর ধর্ষিতার বোনকে বিশেষ নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে৷ এই ধর্ষণকাণ্ডের প্রত্যক্ষদর্শী বলেই তাকে এমন নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি৷ তাছাড়া পরিবারের আর্জি মেনে আত্মরক্ষার জন্য নির্যাতিতার ভাইকে বন্দুক রাখার অনুমতি দেওয়া হয়েছে৷ মেশরমের সঙ্গে ছিলেন পুলিশের আইজি এসকে ভগৎ৷ মেশরাম জানান প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় উন্নাও এর নিগৃহিতার পরিবারকে সরকারি আবাস দেওয়া হবে৷

    উন্নাওকাণ্ড নিয়ে যোগী মুখে কিছু না বললেও তিনি তাঁর দুই মন্ত্রীও উত্তরপ্রদেশের উপ মুখ্যমন্ত্রী স্বামীপ্রসাদ মৌর্য ও কমলা রানি বরুনকে মৃতের পরিবারের আকছে পাঠিয়েছিলেন৷ তাঁরা উন্নাও ধর্ষিতার পরিবারকে সবরকমের সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন৷ এদিকে তাঁদের সামনেই উন্নাও এর নিগৃহীতার পরিবার দোষীদের তেলেঙ্গনার মতো এনকাউন্টারে খতম করার আর্জি জানায়৷