তৃণমূলের প্রার্থী বিজেপির পথে: শাসকদলের হাতছাড়া হতে পারে মালদা জেলা পরিষদ

    তৃণমূলের প্রার্থী বিজেপির পথে: শাসকদলের হাতছাড়া হতে পারে মালদা জেলা পরিষদ

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: ভোটের মুখে তৃণমূলে বড় ভাঙন মালদহে। হাবিবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সহ জেলা পরিষদের ১৫ জন সদস্য বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলে খবর। তালিকায় রয়েছেন জেলা পরিষদের সভাধিপতি এবং কর্মাধ্যক্ষ। ১৫ জন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা বিজেপিতে যোগ দিলে তৃণমূলের হাতছাড়া হতে পারে মালদহ জেলা পরিষদ। ভোটের আগে সুিবধাজনক অবস্থানে মালদহে বিজেপি।

    টিকিট পেয়েও অসন্তুষ্ট মালদহের হবিবপুরের প্রার্থী সরলা মুর্মু। সূত্রের খবর তিনি আজই বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন। দিলীপ ঘোষের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন সরলা মুর্মু। টিকিট পেয়েও অসন্তোষের কারণ স্পষ্ট নয় তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে। এর নেপথ্যে বিজেপির চক্রান্ত রয়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্বের।

    মালদহ জেলা পরিষদের ৩৮ আসনের মধ্যে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের হাতে রয়েছে ৩১ আসন। বিজেপির হাতে ৫ জন এবং কংগ্রেসের হাতে রয়েছে ২টি আসন। তৃণমূল কংগ্রেসের ১৫ জন সদস্য বিজেপিতে যোগ দান করলে শাসক দল সংখ্যা গরিষ্ঠতা হারাবে মালদহে। সেক্ষেত্রে বিজেপি সংখ্যা গরিষ্ঠতা পেয়ে যাবে। অর্থাৎ ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছে যাবে বিজেপি। কাজেই অনায়াসেই জেলা পরিষদ বিজেপির দখলে চলে আসবে।

    টিকিট পেয়েও BJP-তে যোগদান করছে সোমবার সকালে জোর চর্চা শুরু হয়েছে হবিবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সরলা মুর্মুকে নিয়ে। সূত্রের খবর, এদিন দুপুরে দিলীপ ঘোষের উপস্থিতিতে গেরুয়া পতাকা তুলে নেবেন তিনি। এদিকে, অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে সকালেই সরলা মুর্মুকে সরিয়ে দিল তৃণমূল। তাঁকে সরিয়ে প্রার্থী করা হয়েছে প্রদীপ বাস্কেকে। আচমকাই তৃণমূলের এই প্রার্থী মণ্ডল কার্যত জল্পনা আরও উস্কে দিয়েছে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ।