হাতে গোনা বিক্ষিপ্ত ঘটনা ছাড়া ভোট শান্তিপূর্ণ দাবি তৃণমূলের! ভোটে অশান্তি নিয়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে তলব রাজ্যপালের

হাতে গোনা বিক্ষিপ্ত ঘটনা ছাড়া ভোট শান্তিপূর্ণ দাবি তৃণমূলের! ভোটে অশান্তি নিয়ে রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে তলব রাজ্যপালের

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: মোটের উপর শান্তিতেই শেষ হল পুরভোট। পালে হাওয়া নেই বুঝতে পেরে সকাল থেকেই কয়েকটি জায়গায় বুথ দখল, ছাপ্পা ভোট, বহিরাগতদের নিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করে বিরোধীরা। তবে, সেই অভিযোগও হাতে গোনা। দক্ষ হাতে সব গোলমাল নিয়ন্ত্রণ করে রাজ্য পুলিশ। ২২৭৬ ওয়ার্ড, ১১২৮০ বুথের ভোটগ্রহণে অভিযোগ মাত্র হাতে গোনা। শতাংশের হিসেবে দশমিক ৪ । এমনটাই দাবি তৃণমূলের দলীয় মুখপত্র জাগোবাংলা ডিজিটালে।

তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, অত্যন্ত নিরপেক্ষভাবে এই ভোট পরিচালিত হয়েছে। কয়েকটি বুথে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করেছে বিরোধীরা। কিন্তু তাও শতাংশের হিসেবে দশমিক চারের মধ্যে। এর মধ্যে বিভিন্ন বুথে ইভিএম ভাঙার মতো নিন্দনীয় কাজ করেছে বাম-বিজেপি।

এদিকে, পুরভোট নিয়ে রিপোর্ট জানতে রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সৌরভ দাসকে সোমবার, বেলা ১০টায় তলব করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় । এদিকে, ভোটে ভরাডুবি বুঝতে পেরেই সন্ত্রাসের অজুহাতে তুলে সপ্তাহে কাজের শুরুর দিনই ১২ ঘণ্টা বনধের ডাক দিল বিজেপি ।

রাজভবন থেকে জারি করা প্রেস বিজ্ঞপ্তি রাজ্যপালের সরকারি টুইটার হ্যান্ডল থেকে পোস্ট করা হয়েছে। তাতে  বলা হয়েছে, পুরভোটে অশান্তি, আইন-শৃঙ্খলার অবনতি, প্রশাসনের পক্ষপাতিত্ব এবং সর্বোপরি রাজ্য নির্বাচন কমিশনের ব্যর্থতা স‌ংক্রান্ত যে সব অভিযোগ উঠেছে,  মূলত তা নিয়ে আলোচনা করতেই রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে ডেকে পাঠানো হয়েছে। ভোটগ্রহণে অশান্তির ঘটনা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিষয়টি  ‘গণতন্ত্রের ব্যর্থতা’ বলেও ব্যাখ্যা করা হয়। রাজ্যপাল বলেন, ‘‘আমার সাংবিধানিক দায়িত্ব রয়েছে। সবার সাংবিধানিক অধিকার অটুট রয়েছে কি না, তা দেখা আমার দায়িত্বের মধ্যেই পড়ে।’’