মোদি সরকারের আমলে বাড়ছে বেকারত্বের হার: আগষ্টেই দেশে দেশে কর্মহীন হয়েছে ১৫ লক্ষ কর্মী

মোদি সরকারের আমলে বাড়ছে বেকারত্বের হার: আগষ্টেই দেশে দেশে কর্মহীন হয়েছে ১৫ লক্ষ কর্মী

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: অগস্টে দেশে নতুন করে বেকার হয়েছেন ১৫ লক্ষ কর্মী। জুলাইতে দেশে কর্মসংস্থান কিছুটা বেড়েছিল। তবে ফের একবার নিম্নমুখী কর্মসংস্থানের গ্রাফ। এই বিষয়ে সেন্টার ফর নমিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি জানিয়েছে জুলাই মাসে দেশে চাকরিজীবী ছিলেন ৩৯৯.৩৮ মিলিয়ন। সেই সংখ্যা অগস্টে কমে দাঁড়িয়েছে ৩৯৭.৭৮ মিলিয়ন। এর মধ্যে ১৩ লক্ষ মানুষ চাকরি হারিয়েছেন।

সেন্টার ফর নমিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমির তথ্য অনুযায়ী বেকারত্বের হাক ৬.৯৫ শতাংশ থেকে বেড়ে ৮.৩২ শতাংশ হয়েছে। এদিকে শহরের বেকারত্বের হার ১.৫ শতাংশ বেড়েছে। অগস্টে দেশের বেকারত্বের হার বেড়ে হয়েছে ৯.৭৮ শতাংশ। জুলাইতে এই হার ৮.৩ শতাংশ ছিল। তার আগে জুন মাসে দেশের শহরাঞ্চলে বেকারত্বের হার ছিল ১০.০৭ শতাংশ। এর আগে মে মাসে শহরে বেকারত্বের হার ১৪.৭৩ শতাংশ।

এদিকে ভারতের গ্রামাঞ্চলে ১.৩ শতাংশ বেড়েছে বেকারত্বের হার। জুলাইতে এই হার ৬.৩৪ শতাংশ ছিল যা অগস্টে বেড়ে ৭.৬৪ শতাংশ হয়। সেন্টার ফর নমিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমির তথ্য অনুযায়ী দেশে ৩৬ মিলিয়ন লোক বর্তমানে চাকরির খোঁজে রয়েছেন। বিভিন্ন রাজ্যে স্থানীয় বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। সিএমআইই-র রিপোর্ট জানাচ্ছে, করোনায় উৎপাদন ক্ষেত্রে কাজ তৈরির হার কমেছে। ফলে সার্বিক ভাবে মাথা তুলেছে বেকারত্বের হার।