মুর্শিদাবাদে বিশ্ববিদ্যালয়: ঘোষণা হলেও আজও প্রতিশ্রুতি পালন করেনি রাজ্য সরকার

মুর্শিদাবাদে বিশ্ববিদ্যালয়: ঘোষণা হলেও আজও প্রতিশ্রুতি পালন করেনি রাজ্য সরকার

পাঠকের কলমে: দীর্ঘ আন্দোলন, উত্থান-পতন, আলোচনা, বিতর্ক শেষে শিক্ষামন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি ও ঘোষণা এবং পরে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুর্শিদাবাদে বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার কথা বলেন। দীর্ঘ সময় ধরে আন্দোলনকারী ছাত্র ও যুব সমাজ এবং জেলাবাসী আশ্বস্ত হয়। জেলার প্রশাসনিক স্তরে ও সরকারি কর্তাব্যক্তিরা জোর তৎপরতা শুরু করে।

আশা করা হয়েছিল খুব দ্রুত ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে তা কার্যকরী হবে এবং পরবর্তী শিক্ষাবর্ষ থেকে জেলার ছাত্রসমাজ অধ্যায়নের সুযোগ পাবে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনভাবে দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও কোনো হেলদোল নেই সরকার ও প্রশাসনের। মনে রাখতে হবে দীর্ঘদিন ধরে গড়ে উঠা এই আন্দোলন কোন কায়েমী স্বার্থের বা রাজনৈতিক লড়াইয়ের দাবি আদায় এর জন্য ছিলো না, ছিলো শিক্ষার অধিকারের দাবি যা জেলাবাসির ন্যায্য অধিকার। স্বাধীনতার ৭৪ বছরপূর্তি আমরা উদযাপন করলাম কিন্তু জেলার ছাত্র ও জেলাবাসীর মৌলিক অধিকার শিক্ষার অধিকার পূরণ করতে ব্যর্থ আমাদের রাজনৈতিক নেতারা ও সরকার বাহাদুর।

উন্নয়ন ও কাজের ফিরিস্তির লিস্টের শেষ নেই কিন্তু শিক্ষার অধিকার বা বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়নের প্রচেষ্টার কোনো হেলদোল নেই। জানিনা কোন অজুহাতে বা সদিচ্ছার অভাবে বা প্রশাসনিক কোন গাফিলতির কারনে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কাজকে সম্পন্ন করা হচ্ছে না, কিন্তু একথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই যে, নূন্যতম সদিচ্ছা থাকলে সরকার বা প্রশাসনকে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে দেখতাম।

জেলার রাজনৈতিক নেতা, জনপ্রতিনিধি ও মন্ত্রীদের সক্রিয় হওয়া প্রয়োজন, যারা নিজেদেরকে জেলার উন্নয়নের কান্ডারী হিসেবে প্রকাশ করতে চাইছেন, মঞ্চে বক্তব্যের ফুলঝুরি ঢালছেন কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও এটা সত্য যে এই ঘোষণাকে কার্যকরী করার ক্ষেত্রে ন্যূনতম সচেষ্ট হওয়া এদের উচিত ছিলো তা নেই, যে ব্যর্থতার গ্লানি বহন করে আসছিলেন এই নেতারা তাদের শুধরানোর সুযোগ ছিলো। তাই আসুন অনতিবিলম্বে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণা মোতাবেক মুর্শিদাবাদ জেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ সম্পন্ন করে দ্রুত পঠন-পাঠন শুরু করা হোক এই আহ্বানের সবাই সোচ্চার হই।

কলমে
মশিউর রহমান, ধুলিয়ান, মুর্শিদাবাদ