বিভিন্ন কর্মীরা রোজা রেখে কাজ করেন দিনের পর দিন: অনুপ্রাণিত হয়ে রোজা রাখছেন অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়

    বিভিন্ন কর্মীরা রোজা রেখে কাজ করেন দিনের পর দিন: অনুপ্রাণিত হয়ে রোজা রাখছেন অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়

    নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: রমজানে রোজা রেখেছেন ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়। ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু রমজান। চলবে ১৩ মে পর্যন্ত। ভাস্কর জানিয়েছেন, রমজান মাসের এই বিশেষ উপবাস নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করছেন তিনি। কেন? ভাস্বরের যুক্তি, ‘‘মন থেকে চাই হিন্দু-মুসলিম এক হোক। এক সঙ্গে সবাই সব পরব মানুন।’’ একই সঙ্গে তাঁর প্রথম রোজা উৎসর্গ করেছেন কাশ্মীরীদের জন্য, আর ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করা সমস্ত মুসলিম মেকআপ আর্টিস্টদের। তাঁর কথায়, ‘‘আমাদের ইন্ডাস্ট্রির অনেক মুসলিম মেকআপ আর্টিস্ট, ড্রেসার রোজা রেখে কাজ করেন দিনের পর দিন। আমি না হয় আমার মতো করে ওঁদের প্রতি আমার ভালবাসা, সম্মান ফেরত দিলাম!’’

    অনেক দিন ধরেই কাশ্মীরী ভাষা শিখছেন অভিনেতা। সম্প্রতি, নেটমাধ্যমে ওই ভাষায় রমজানের শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন তিনি। কাশ্মীরী ভাষায় গানও গেয়েছেন। যা শুনে আপ্লুত সেখানকার বিখ্যাত শিল্পী ইশফক কাওয়া। ভাস্বরের কথায়, ‘‘ইনস্টাগ্রামে কাওয়া নিজে যোগাযোগ করেন। কাশ্মীরে যাওয়ার আমন্ত্রণও জানিয়েছেন।’’ শুধু ২ ধর্মের মানুষের মিলনই কাম্য নয় অভিনেতার। ভারত-পাকিস্তানের দ্বন্দ্বও মেটাতে চান তিনি। ‘‘দেশভাগ আমায় বরাবর কষ্ট দেয়’’, দাবি ভাস্বরের। সেই অনুভূতি থেকেই দূরত্বের অবসান চেয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে সম্প্রতি টুইট করেছেন তিনি।

    ভাস্বর ব্রাহ্মণ। সে জানান, লোকনাথ বাবা নিজেও নাকি কোরান পাঠ করতেন।তিনি বললেন, ‘‘লোকনাথ বাবার এই আচরণ আমায় ছুঁয়ে গিয়েছিল। তাঁর থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই আমার এই পদক্ষেপ’’।
    প্রতিবেদন আনন্দ বাজার পত্রিকার