আমাদের সন্ত্রাসী পর্যন্ত বলা হয়েছিল! আমরা মিডিয়াকে ক্ষমা করে দিয়েছি: তবলিগি জামাত

আমাদের সন্ত্রাসী পর্যন্ত বলা হয়েছিল! আমরা মিডিয়াকে ক্ষমা করে দিয়েছি : তবলিগি জামাত

নিউজ ডেস্ক বঙ্গ রিপোর্ট: কোভিড-১৯-এর প্রাদুর্ভাবের শুরুর দিনে দিল্লির নিজামুদ্দিন মার্কাজে যাওয়ার জন্য তবলিগি জামাত কর্মীদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিল দেশের প্রায় সব মিডিয়া। তারপরও তবলিগি কর্মীরা নীরব থেকে শান্তি বজায় রেখেছিলেন। দেশের করোনা ছড়ানোর জন্য মিডিয়া তাঁদেরই কাঠগড়ায় তুলে অপরাধী সাব্যস্ত করেছিল।

দীর্ঘদিনের এক তবলিগি সদস্য বললেন,”আমরা আল্লাহর জন্য ভারতের মিডিয়া ও যারা আমাদের সন্ত্রাসী বলে সমালোচনা করেছিল তাদের ক্ষমা করে দিয়েছি। মার্কাজ থেকে আমাদের কঠোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে গত বছরের ঘটনা নিয়ে মিডিয়াতে কথা না বলতে।” আরও এক তবলিগি কর্মী বলেন, বিনা কারণে দেশের অনেক আদালতে তবলিগি কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল। কিন্তু অভিযোগগুলি ভিত্তিহীন হওয়ায় সব মামলায় তবলিগিরা জয়ী হয়। তিনি আরও জানান, মিডিয়া অভূতপূর্ব মিথ্যাচার করার জন্য গভীর হতাশা ও অপমানের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে তবলিগিদের।

কিন্তু তবলিগি জামাত প্রধান মাওলানা সাদ আশা জুগিয়েছিলেন সেই বিষাদের দিনে। তিনি জানান, তবলিগি কর্মীরা প্রশাসনের সম্মতি নিয়েই জমায়েত করেছিল। সরকারও জানত বিদেশি অতিথিদের বিষয়ে। কিন্তু তারা এমন ভাব দেখাল যেন তারা কিছুই জানত না। একটা ভয়ানক ষড়যন্ত্র হয় গোটা বিষয়টাকে নিয়ে। হায়দরাবাদের এক তবলিগি কর্মী জানালেন, বহু বিদেশিকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয় এবং যাঁদের ফেরার তাড়া ছিল তাদের জরিমানা দিয়ে বাড়ি ফিরতে হয়েছে। বাকিরা দেশের নানা আদালতে মামলা লড়ে জয় লাভ করে দেশে ফিরেছেন।